Logo
বুধবার, ১৭ জুলাই, ২০১৯ | ২রা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

হোল্ডারের ম্যাচে ‘নায়ক’ চেজও

প্রকাশের সময়: ৪:০০ অপরাহ্ণ - সোমবার | জানুয়ারি ২৮, ২০১৯

তৃতীয় মাত্রা :

প্রথম ইনিংসে কেমার রোচ দেখিয়েছিলেন ২৭ বলের স্পেলে পাঁচ উইকেটের চমক। এরপর আট নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক জেসন হোল্ডার হাঁকান ডাবল সেঞ্চুরি। আর দ্বিতীয় ইনিংসে ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের বল হাতে ভেলকি দেখান ওয়েস্ট ইন্ডিজের পার্ট টাইম স্পিনার রোস্টন চেজ! ইনিংসে একাই আট উইকেট নেন এ ক্যারিবীয় অফস্পিনার। বার্বাডোস টেস্টে এতে ৬২৮ রানের টার্গেটে ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংস থেমে পড়ে ২৪৬ রানে। আর ৩৮১ রানের বিশাল ব্যবধানে জয় নিয়ে সিরিজে এগিয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।  রানের হিসেবে এটি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ব্যবধানে জয়। এমন শীর্ষ রেকর্ডে ১৯৭৬’র ইংল্যান্ড সফরে ম্যানচেস্টার টেস্টে ৪২৫ রানে জয় দেখে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
ব্রিজটাউনে প্রথম ইনিংসে বলই হাতে পাননি রোস্টন চেজ । শনিবার টেস্টের চতুর্থ দিনে ৬০.৪ ওভার স্থায়ী ছিল ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংস।

এর মধ্যে রোস্টন চেজ একাই বল করেন ২১.৪ ওভার। বাকি পাঁচ বোলার মিলে ৩৯ ওভার বল করে তুলে নেন বাকি দুই উইকেট। ইংলিশ ব্যাটসমানদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৮৪ রান করেন ররি বার্নস। টেস্ট ক্রিকেটে এটি চেজের ক্যারিয়ার সেরা বোলিং ফিগার (২১.৪-২-৬০-৮)। আর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টে এটি কোনো ক্যারিবীয়ান বোলারের দ্বিতীয় সেরা বোলিং (৮/৬০)। এমন শীর্ষ রেকর্ডে বার্বাডোসের ব্রিজটাউনেই ১৯৯০ সালে ৪৫ রানে ৮ উইকেট নিয়েছিলেন পেসার কার্টলি অ্যামব্রোস। টেস্ট ম্যাচের প্রথম ইনিংসে বল না করে দ্বিতীয় ইনিংসে সেরা বোলিং ফিগারের রেকর্ডটি চেজেরই। এতে চেজ ভেঙে দিলেন দীর্ঘ ১১৫ বছরের পুরনো রেকর্ড। এর আগে রেকর্ডটি ছিল অজি অফ স্পিনার হিউ ট্রেম্বলের দখলে। ১৯০৪ সালে মেলবোর্নে ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে ২৮ রানে ৭ উইকেট নিয়েছিলেন ট্রেম্বল। টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংসে পঞ্চম সেরা বোলিং নৈপুণ্য চেজের। তালিকায় চেজের আগে রয়েছেন কেবল  জ্যাক নরেইগা (৯/৯৫), ল্যান্স গিবস (৮/৩৮), দেবেন্দ্র বিশু (৮/৪৯) অ্যামব্রোস (৮/৪৫)।
তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে ব্রিজটাউনের কেনসিংটন ওভাল মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ২৮৯ রানের জবাবে মাত্র ৭৭ রানে গুঁড়িয়ে যায় ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংস। ফলোঅন করানোর সুযোগ থাকলেও আবার ব্যাটিংয়ে নামে উইন্ডিজ। আর অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের ডাবল সেঞ্চুরি এবং শেন ডাওরিচের শতকে ৪১৫/৪ সংগ্রহ নিয়ে ইনিংস ঘোষণা করে স্বাগতিকরা। আর খেলা শেষে ম্যাচসেরার পুরস্কার ওঠে জেসন হোল্ডারের হাতেই। টেস্ট ক্যারিয়ারে ডাবল সেঞ্চুরি ও বল হাতে ম্যাচে ১০ উইকেট শিকারের কৃতিত্ব দেখানো মাত্র ষষ্ঠ ক্রিকেটার জেসন হোল্ডার। ক্যারিয়ারের ৩৬তম টেস্টে এসে গর্বের এমন ‘ডাবল’ পূর্ণ করলেন এ ক্যারিবীয় অলরাউন্ডার। টেস্টে এমন কীর্তি রয়েছে ওয়াসিম আকরাম, ভিনু মানকড়, ইয়ান বোথাম, অ্যালান বর্ডার ও বাংলাদেশি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের।  টেস্টে হোল্ডারের ১০ উইকেটের কীর্তি রয়েছে একবারই। গত বছর বাংলাদেশের বিপক্ষে জ্যামাইকা টেস্টে (৫+৬) এমন কৃতিত্ব দেখান হোল্ডার।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
টস: ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ব্যাটিং
ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ২৮৯ ও ৪১৫/৬ ডি.
ইংল্যান্ড: ৭৭ ও ২৪৬
ফল: ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩৮১ রানে জয়ী
ম্যাচসেরা: জেসন হোল্ডার

Read previous post:
পিএসজি’র আরেকটি দুর্দান্ত জয়

তৃতীয় মাত্রা : ঘরের মাঠ পার্ক দেস প্রিন্সেসে রেনেকে স্বাগত জানায় প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)। চেনা মাঠে ফরাসি চ্যাম্পিয়নদের হয়ে...

Close

উপরে