Logo
রবিবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৮ | ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ঈদুল আযহা উপলক্ষে সাড়ে ১৪ হাজার দুঃস্থ পরিবারের মধ্যে ভিজিএফ চাউল বিতরণ

প্রকাশের সময়: ৪:৩৬ অপরাহ্ণ - শুক্রবার | আগস্ট ১০, ২০১৮

তৃতীয় মাত্রা :

শেখ রনজু আহাম্মেদ, রাজবাড়ী প্রতিনিধি : ঈদুল আযহা উপলক্ষে দুঃস্থদের জন্য বরাদ্দকৃত ভিজিএফ চাউল শুক্রবার রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে একযোগে ২০ কেজি করে ১২ হাজার ৪শত ৬৭টি পরিবারের মাঝে চাউল বিতরণ করা হয়েছে। নারুয়া লিয়াকত আলী স্মৃতি স্কুল এন্ড কলেজে চাউল বিতরণ উদ্বোধন করেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাসুম রেজা। এসময় নারুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুস সালাম মাষ্টার, উপজেলা শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপার ভাইজার মিয়াদ হোসেনসহ ইউপি সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা জানান, ঈদুল আযহা উপলক্ষে দুঃস্থদের মধ্যে বিতরণের জন্য ইসলামপুর ইউনিয়নে ২১৫১টি, নারুয়া ইউনিয়নে ১৭৮৯টি, নবাবপুর ইউনিয়নে ২৬৩১টি, বহরপুর ইউনিয়নে ২৩৯৬টি, জঙ্গল ইউনিয়নে ১৪১০টি, জামালপুর ইউনিয়নে ২০৯০টি, বালিয়াকান্দি ইউনিয়নে ১৯১৮টি কার্ডের বিপরীতে ২০ কেজি করে ২৮৭.৭০০ মেট্রিক টন চাউল বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। শুক্রবার একযোগে ৬টি ইউনিয়নে চাউল বিতরণ করা হয়েছে। সকাল থেকেই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাসুম রেজা, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা প্রতিটি ইউনিয়নে গিয়ে চাউল বিতরণ করাসহ ওজনে কারচুপি যাতে না হয় সেদিকে সকলের দৃষ্টি আকর্ষন করেন। এসময় চাউল নিতে আসা কার্ডধারীদের সাথেও কথা বলেন ও তাদের কোন অভিযোগ থাকলে বলতে আহবান জানান। চাউল বিতরণ কালে প্রতিটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও ট্রাগ অফিসাররা উপস্থিত ছিলেন। বালিয়াকান্দি ইউনিয়নের ১৯১৮টি কার্ডের চাউল পরবর্তীতে ঈদের আগেই বিতরণ করা হবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাসুম রেজা বলেন, দুঃস্থ মানুষের মধ্যে ঈদের আনন্দ ছড়িয়ে দিতে সরকার ভিজিএফ চাউল বিতরণ করছে। সঠিক ভাবে চাউল বিতরণের লক্ষে সকাল থেকে একযোগে চাউল বিতরণ শুরু করা হয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়নে আমরা গিয়েছি। সুষ্ঠু ভাবে চাউল বিতরণ হয় তার জন্য সকল ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়। বালিয়াকান্দি ইউনিয়নের চাউল পরবর্তীতে ঈদের আগেই বিতরণ করা হবে।

 

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
Read previous post:
আশরাফুল ভক্তদের জন্য সুখবর

তৃতীয় মাত্রা : বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ম্যাচ ফিক্সিং ও স্পট ফিক্সিংয়ের দায়ে পাঁচ বছরের নিষিদ্ধ হয়েছিলেন বাংলদেশ জাতীয় দলের...

Close

উপরে