Logo
শুক্রবার, ২২ মার্চ, ২০১৯ | ৮ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শ্রীপুরে বনকর্মী-গ্রামবাসী সংঘর্ষ 

প্রকাশের সময়: ৯:৪১ পূর্বাহ্ণ - মঙ্গলবার | মে ৩০, ২০১৭
Uncategorized |

তৃতীয় মাত্রাঃ

জাহিদুল ইসলাম,শ্রীপুর (গাজীপুর):

গাজীপুরের শ্রীপুরে গ্রামবাসী ও বনকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে নারীসহ উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছেন। ঘুষের টাকা না পাওয়ায় বনকর্মীদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ করেছেন গ্রামবাসী।

সোমবার বিকাল ৩ টায় শ্রীপুরের বরমী ইউনিয়নের গাড়ারন খলারটেক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হামলা নির্যাতনের প্রতিবাদে রাত আটটায় দু’শতাধিক নারী পুরুষ শ্রীপুর পৌর শহরে বিক্ষোভ মিছিলশেষে থানা সড়কে অবস্থান নেয়।

আহতরা হলেন-শ্রীপুর ফরেস্ট রেঞ্জ কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক, ফরেস্ট বিট কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম, বন প্রহরী শংকর বীর, আজহারুল ইসলাম, সাজেদুল ইসলাম, সাজেদুর রহমান, আনোয়ার হোসেন, গ্রামবাসী আব্দুস সালামের স্ত্রী পারুল আক্তার, তার ছেলে আলামিন, শমসেরের কন্যা নিপা আক্তার, নুরুল ইসলামের স্ত্রী রাজিয়া, সুমনের স্ত্রী লিজা আক্তার, মাফুজের স্ত্রী স্মৃতি আক্তার, মহর আলীর মেয়ে জুলেখা। আহতরা শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

গাড়ারন খলারটেক গ্রামের আব্দুস ছালাম জানান, গত কিছুদিন আগে ঝড়ে তার টিনের চাল ও বেড়া ভেঙ্গে যায়। সোমবার ওই ঘর মেরামতের সময় ফরেস্ট বিট কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম বনপ্রহরীদের সাথে নিয়ে মেরামতে বাধা দেয়। অন্যথায় তার স্ত্রী পারুলের কাছে ২০ হাজার টাকা ঘুষ দাবী করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, এসময় বন কর্মকর্তা ও প্রহরীদের সামনেই তারা মেরামত করতে থাকে। এক পর্যায়ে বনকর্মীরা পারুলকে লাথি মেরে ফেলে দিলে গ্রামবাসীরা বিট কর্মকর্তা ও বন প্রহরীদের ওপর চড়াও হয়। গ্রামবাসীর গণপিটুনিতে বনকর্মীরা আহত হন। এসময় বনকর্মীদের দুটি মোটরসাইকেল ভাংচুর করা হয়।

উপজেলা ফরেস্ট রেঞ্জ কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক জানান, বন দখলে জনৈক সাংবাদিকের খবরের ভিত্তিতে বন কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে বাধা দেয়। এসময় গ্রামবাসী তাদের ওপর হামলা করে। একপর্যায়ে হামলার খবর শুনে তিনি ঘটনাস্থলে গেলে গ্রামবাসী তার ওপরও হামলা করে। বনকর্মীদের চারজন শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে। তবে টাকা দাবীর অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, গ্রামবাসী অপপ্রচার দিচ্ছে।

শ্রীপুর থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) কায়সার আহমেদ জানান, এলাকায় গিয়ে তিনি বনকর্মীদের দুটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেন। মোটরসাইকেল দুটি বনকর্মীদের এবং তারা সেগুলো নিয়ে গেছে। কয়েকদিন পর পর ওই এলাকার লোকদের কাছ থেকে বনকর্মীদের টাকা উত্তোলনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এলাকার প্রায় সকল মানুষ ভূমিহীন ও খেটে খাওয়া দিনমজুর।

এদিকে, রিপোর্ট লেখার সময় (রাত আটটায়) গাড়ান খলারটেক গ্রামের দু’শতাধিক নারী পুরুষ বন কর্মকর্তা ও প্রহরীদের নিয়মিত অত্যাচার নির্যাতন, মিথ্যা মামলা থেকে রেহাই পাওয়ার জন্য শ্রীপুর পৌর শহরে বিক্ষোভ মিছিল শেষে থানা সড়কে অবস্থান নেয়।

Read previous post:
ফকিরহাট বাল্য বিবাহ বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত

তৃতীয় মাত্রা: এস.এম. সাইফুল ইসলাম কবির, বাগেরহাট অফিস :  বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার মূলঘর ইউনিয়নের সিএসএস নিরাপদ মাতৃত্ব বিষয়ক এ্যাডভোকেসি প্রকল্পের...

Close

উপরে