Logo
মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ২৬শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ঢাকা থেকে ময়নাতদন্তকারী টিমের দিয়াজের বাসা পরিদর্শন

প্রকাশের সময়: ৭:৫৯ অপরাহ্ণ - রবিবার | জানুয়ারি ১, ২০১৭
Uncategorized |

তৃতীয় মাত্রা:
মোবারক হোসেন আজাদ,চবি সংবাদদাতা: ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ ইরফান চৌধুরীর ময়নাতদন্তের স¦ার্থে ঢাকা থেকে ফরেনসিক বিভাগের একটি টিম গতকাল রবিবার তার বাসা পরির্দশন করে। তিন সদস্য এই টিমের নেতৃত্ব দেন ঢাকা মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহামুদ। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন দিয়াজের হত্যা মামলার তদন্তের দায়িত্বে থাকা চট্টগ্রাম জোনের সিআইডি এএসপি অহিদুর রহমান।
জানাযায়, সকাল সাড়ে ১০টায় চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়ের  দুই নম্বর গেইট এলাকায় অবস্থিত দিয়াজের বাসায় আসে ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক টিম। এসময় তারা দিয়াজ এর মরদেহ ঝুলন্ত অবস্থায় যে কক্ষ থেকে উদ্ধার করা হয় সেই কক্ষটি খতিয়ে দেখে। খাট ও ফ্যানের দূরত্বও নির্ণয় সহ রুমের আশেপাশের ভাঙা গ্লাস ও ব্যালকনির দরজা ও  বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ক্রাইম সিনের ছবি তুলে নমুনা সংগ্রহ করেন তারা। পরে দিয়াজের মরদেহ নামানোর সময় উপস্থিত থাকা  প্রতক্ষ্যদর্শীর সঙ্গে কথা বলেন তদন্ত টিম। এছাড়া দিয়াজের মা জাহেদা আমিন চৌধুরী, বড় বোন অ্যাডভোকেট জুবাঈদা ছরওয়ার চৌধুরী নিপা ও দিয়াজের ভগ্নিপতি সরওয়ার আলমের সাথে এই্ বিষয়ে কথা বলেন।
দিয়াজের বাসা থেকে আলামত সংগ্রহ করা পর দুপুর পৌনে একটার দিকে সাংবাদিকদের বিফ্রিং করেন ঢাকা মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের  প্রধান চিকিৎসক সোহেল মাহমুদ। এ সময় তিনি বলেন, চট্টগ্রাম কোটের আদেশে ঢাকা মেডিকেল কলেজের তিন সদস্যের এই মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। আমরা দিয়াজের লাশ দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত করি। ময়না তদন্তের পর আমাদের কাছে মনে হয়েছে ঘটনা স্থল পরিদর্শন করা প্রয়োজন। তাই আমার ঘটনা স্থল পরিদর্শন করিছি। দিয়াজকে হত্যাকরা হয়েছে কিনা এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমরা কোন মন্তব্য করব না। এটি পর্যালোচনার বিষয়। আমরা এখান থেকে আলামত সংগ্রহ করে নিলাম। পর্যালোচনা শেষে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব প্রতিবেদন প্রকাশ করা হবে।
এ সময় দিয়াজের হত্যা মামলার তদন্তের দায়িত্বে থাকা চট্টগ্রাম জোনের সিআইডির এএসপি অহিদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন,  ঢাকা মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহামুদের নেতৃত্বে  তিন সদস্যের একটি টিম দিয়াজের দ্বিতীয় ময়না তদন্ত করছেন। তারা দিয়াজের বাসা থেকে ময়নাতদন্তের স্বার্থে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেছেন। তাছাড়া দিয়াজের প্রথম ময়নাতদন্তকারীদের সাথে কথা বলবে তারা।
এদিকে দিয়াজ ‘হত্যার’ বিচারের দাবিতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই নম্বর গেটে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে তার অনুসারীরা। এসময় তারা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি আলমগীর টিপুকে দিয়াজের হত্যাকারী দাবি করে তার কুশপুত্তলিকা পোড়ায়।
উল্লেখ্য, গত ২০ নভেম্বর রাতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় দুই নং গেইট এলাকার নিজ  বাড়ি থেকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ সম্পাদক দিয়াজ ইরফান চৌধুরীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এসময় পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় তাকে হত্যা করা হয়েছে। পরে ময়না তদন্তে তার আত্যহত্যা বলা হয়। এ প্রতিদবেদন পরিবার প্রত্যাক্ষানা করে চট্টগ্রাম আদালতে চবি সহকারী প্রক্টর আনোয়ার হোসেন চৌধুরী, চবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবুল মনসুর জামসেদ, বর্তমান সভাপতি আলমগীর টিপুসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ করে অভিযোগ দায়ের করেন। এ অভিযোগের ভিত্তিতে দিয়াজের লাশ পুনরায় ঢাকা মেডিকেল কলেজে ময়না তদন্ত করা হয়। তবে এখনো দ্বিতীয় ময়না তদন্তের প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়নি।

Read previous post:
জামালপুর বর্ণিল উৎসবে শিশুদের হাতে নতুন বই

তৃতীয় মাত্রা: এম.এ রফিক,জামালপুর: শিক্ষা নিয়ে গড়বো দেশ, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ। এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে গতকাল রোববার উৎসবমুখর পরিবেশে প্রাথমিক...

Close

উপরে