Logo
শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৯ | ৫ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

তুরস্ক ফ্রেন্ডশীপ স্কুলের শতভাগ জিপিএ-৫ অর্জনের মাইল ফলক সাফল্য

প্রকাশের সময়: ৩:০৪ অপরাহ্ণ - বৃহস্পতিবার | ডিসেম্বর ২৯, ২০১৬
Uncategorized |

তৃতীয় মাত্রা:
খালিদ হোসেন মিলটন, গলাচিপা,পটুয়াখালী: গলাচিপা উপজেলা প্রশাসন পরিচালিত বাংলাদেশ তুরস্ক ফ্রেন্ডশীপ স্কুলের ( প্রাইভেট ) ৫ম ব্যাচের ৫ম শ্রেনীর সমাপনী পরীক্ষায় ফলাফলে বিরাট সাফল্য অর্জন করেছে। ২০১৬ শিক্ষা বর্ষে বিদ্যালয় থেকে ৪৩ জন শিক্ষার্থী সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে। ফলাফলে বরিশাল বিভাগ এবং পটুয়াখালী জেলার মধ্যে শতকরা জিপিএ-৫ অর্জনে শ্রেষ্টত্ব বজায় রেখেছে। সরকারী ভাবে ফলাফল ঘোষনার পর শিক্ষার্থীরা,অভিভাবক, শিক্ষক-শিক্ষিকা বৃন্দ আনন্দ উল্লাসে মেতে ওঠে। স্কুলের ভাল ফলাফল অর্জনে স্কুলের সুদক্ষ  অধ্যক্ষ রোকাইয়া সুলতানা প্রথমে মহান আল্লাহ পাকের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন শিক্ষক-শিক্ষিকাদের আন্তরিকতা, টিম ওয়ার্ক সুন্দর পাঠ দান, সাপ্তাহিক মূল্যায়ন পরীক্ষা ও সর্বোপরি শৃঙ্খলাই আমাদের স্কুলের মূল ভিত্তি। তিনি সকল জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের ও অভিভাবকদের অভিনন্দন জানান। স্কুলের সভাপতি ও উপজেলার সুযোগ্য নির্বাহী অফিসার আবদুল্লাহ আল বাকী জানান যে, স্কুলের শৃঙ্খলা, ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়মিত অধ্যবসায় ও শিক্ষকদের দায়ীত্বশীলতা ও ম্যানেজিং কমিটির দায়ীত্বশীল ভূমিকার এই সাফল্য অর্জন করা সম্ভব হয়েছে। তিনি স্কুলের সার্বিক সাফল্য কামনা করে শিক্ষক শিক্ষিকা ও অভিভাবকদের ধন্যবাদ জানান।
উল্লেখ্য গলাচিপা উপজেলার তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বর্তমান সাতক্ষীরা জেলার জেলা প্রশাসক, শিক্ষা দরদী ও আলোকিত মানুষ জনাব আবুল কাশেম মোঃ মহিউদ্দিন সাহেব ২০০৮ সালে উপজেলা চত্বরে শিশুদের জন্য সু-শিক্ষা (এড়ড়ফ ঊফঁপধঃরড়হ), সংস্কৃতি ও মানুষিক বিকাশের লক্ষে স্কুলটি প্রতিষ্ঠা করে এবং স্কুলের সার্বিক উন্নয়নে পরবর্তিতে ইউএন ও লস্কার তাজুল ইসলাম এবং মাহবুব আলম, বর্তমান উপজেলার সুযোগ্য নির্বাহী অফিসার আবদুল্লাহ আল বাকী স্কুলের অবকাঠামো উন্নয়ন সহ নানাবিধ শিক্ষা উপকরন সহ অনেক উন্নয়ন করেছে। স্কুলটি প্রাথমিক শিক্ষার জন্য একটি মডেল স্কুল হিসাবে দেশে এবং এলাকায় ব্যপক সুনাম অর্জন করেছে। স্কুলে বৃত্তির ফলাফল জেনে শিক্ষার্থীরা আনন্দে উল্লাসে ফেটে পরে এবং শিক্ষক শিক্ষিকা, শিক্ষার্থী ও অবিভাবক মিস্টিমুখে মুখরিত করে স্কুল আঙ্গিনা। স্কুলের ২০১২ শিক্ষাবর্ষে ২০ শিক্ষার্থীর মধ্যে ১৭ জন জিপিএ-৫, ২০১৩ শিক্ষাবর্ষে ১৮ শিক্ষার্থীর মধ্যে ১৫ জন জিপিএ-৫, ২০১৪ শিক্ষাবর্ষে ৩৪ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৩২ জন জিপিএ-৫, ২০১৫ শিক্ষাবর্ষে ৫১ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৪৪ জন জিপিএ-৫ এবং ২০১৬ শিক্ষাবর্ষে ৪৩ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৪৩ জন জিপিএ-৫ ফলাফল অর্জন করেছে। বাংলাদেশ তুরস্ক ফ্রেন্ডশিপ স্কুলটি প্রাথমিক শিক্ষার জন্য একটি সু-শিক্ষার নিদর্শন।

Read previous post:
শ্রীমঙ্গলে পরিবহন ব্যবসায়ীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

তৃতীয় মাত্রা: মো: জহিরুল ইসলাম,শ্রীমঙ্গল,মৌলভীবাজার: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে পরাগ দেব (২৭) নামে এক পরিবহন ব্যবসায়ীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।...

Close

উপরে