Logo
মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ | ১২ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রোহিঙ্গারা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে নতুন আবাসনে

প্রকাশের সময়: ৯:১৯ অপরাহ্ণ - শনিবার | ডিসেম্বর ৫, ২০২০

তৃতীয় মাত্রা

ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের জন্য প্রায় ৩১০০ কোটি টাকায় নির্মিত অস্থায়ী আবাসস্থলে এখন উৎসের আমেজ। শুক্রবার দুপুরে রোহিঙ্গাদের প্রথম বহর সেখানে পৌঁছে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে। তাদের বরণ করে নেয় কর্তৃপক্ষ। কক্সবাজার থেকে ভাসানচরে এসে প্রথম রাতটা স্বস্তির সঙ্গে নিরাপদে কাটিয়েছে রোহিঙ্গাদের প্রথম দলটি।
রোহিঙ্গাদের আবাসস্থলের আশপাশ ঘুরে দেখা গেছে, আনন্দময় কাটছে তাদের নতুন আবাস। সকাল থেকে এদিক–সেদিক ছোটাছুটি আর খেলায় মশগুল শিশুরা।

ভাসানচরে ঘুরে দেখা গেছে, শুক্রবার এখানে আসা ১ হাজার ৬৪২ জন রোহিঙ্গার সবাইকে রাখা হয়েছে কাছাকাছি। এক লাখ রোহিঙ্গার জন্য ১২০টি গুচ্ছগ্রাম নির্মাণ করা হয়েছে। সব মিলিয়ে ১ হাজার ৪৪০টি ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। প্রতিটি ঘরে আছে ১৬টি কক্ষ, সামনে আটটি, পেছনের দিকে আরো আটটি।

রান্নার জন্য প্রতি আটটি পরিবারের জন্য একটি নির্দিষ্ট জায়গায় আটটি চুলা আছে। আর প্রতি আটটি কক্ষের জন্য তিনটি শৌচাগার এবং দুটি গোসলখানা রয়েছে। ভাসানচরে ২০ শয্যার হাসপাতালে ব্রিফিংয়ের আয়োজন করেছে আশ্রয়ণ ৩ প্রকল্প কর্তৃপক্ষ।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গাদের প্রথম দল রওনা দেয় চট্টগ্রামে। সেখান থেকে শুক্রবার সকালে ৮টি জাহাজে করে এক হাজার ৬৪২ রোহিঙ্গা রওনা হন ভাসানচরে। যেখানে আগে থেকেই রোহিঙ্গাদের স্বাগত জানাতে নানা রঙের ব্যানার ফেস্টুন লাগানো হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যানার ফেস্টুনও সেখানে রয়েছে। সেসবে শেখ হাসিনাকে মাদার অব হিউমিনিটি হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

ভাসানচর দ্বীপটি বাসস্থানের উপযোগী করা, অবকাঠামো উন্নয়ন, বনায়ন এবং নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে নৌবাহিনীকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। রোহিঙ্গাদের জন্য আধুনিক বাসস্থান ছাড়াও বেসামরিক প্রশাসনের প্রশাসনিক ও আবাসিক ভবন, আইন প্রয়োগকারী সংস্থার ভবন, মসজিদ, স্কুল হিসেবে ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় ভবন, হাসপাতাল, ক্লিনিক ও খেলার মাঠ নির্মাণ করা হয়েছে।

 

Read previous post:
এখন মহামারি সমাপ্তির স্বপ্ন দেখা যায়: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

তৃতীয় মাত্রা করোনাভাইরাস ভ্যাকসিনের পরীক্ষার ফলাফল ইতিবাচক। তাই বিশ্ববাসীকে এই মহামারি সমাপ্তির স্বপ্ন দেখতে আশার বাণী শুনিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার...

Close

উপরে