Logo
মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ | ১২ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শীত পড়তেই গোড়ালি ফাটছে? এই ফুট মাস্ক ব্যবহারে গোড়ালি ফাটার সমস্যা সহজেই দূর হবে!

প্রকাশের সময়: ৯:৩৮ অপরাহ্ণ - বুধবার | ডিসেম্বর ২, ২০২০

তৃতীয় মাত্রা

তৃতীয় মাত্রা স্বাস্থ্য ডেস্ক : শুরু হয়ে গিয়েছে শীতের মরসুম। আর শীতকাল মানেই ত্বক রুক্ষ-শুষ্ক হয়ে যাওয়ার সমস্যা। তাই ত্বকের প্রতি একটু বেশিই যত্নের প্রয়োজন হয়। সাধারণত আমরা মুখ, হাত, চুলের যত্ন নিই কিন্তু পায়ের দিকে আমরা ততটাও খেয়াল রাখি না। এই কারণে পায়ের সৌন্দর্য হ্রাস পায়, পায়ের গোড়ালি ফাটতে শুরু করে। তাই পায়ের যত্ন নিতে আপনি ঘরে তৈরি ফুট মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। এর ফলে সহজেই গোড়ালি ফাটার সমস্যা সহজেই দূর হয়! তাহলে আসুন জেনে নিই ফুট মাস্ক তৈরির পদ্ধতি। ১) নারকেল ও কলার ফুট মাস্ক তৈরির পদ্ধতি ১) নারকেল ও কলার ফুট মাস্ক তৈরির পদ্ধতি টুকরো করে কাটা কলা এবং লম্বা করে কাটা চার টুকরো নারকেল। কলার টুকরোর সঙ্গে নারকেল টুকরো একসঙ্গে ব্লেন্ডারে দিয়ে ভাল করে ব্লেন্ড করে নিন। নারকেল ও কলার ফুট মাস্ক ব্যবহার করার পদ্ধতি স্টেপ ১ – নারকেল ও কলার মিশ্রণটি পায়ের ফাটা জায়গায় ভাল করে লাগিয়ে নিন। স্টেপ ২ – শুকিয়ে গেলে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নারকেল ও কলার ফুট মাস্কের উপকারিতা পা ফাটার সমস্যার সমাধান করতে এই ফুট মাস্কটি ব্যবহার করুন। সমস্যার সমাধান হবে খুব দ্রুত! কলা চটকে নিয়ে তাতে তিন চামচ নারকেল তেল মিশিয়েও লাগাতে পারেন। উপকার পাবেন। ২) দই-কলা ফুট মাস্ক তৈরির পদ্ধতি ২) দই-কলা ফুট মাস্ক তৈরির পদ্ধতি ১টি পাকা কলা, ১ কাপ দই, ১ চামচ চিনি, কয়েক ফোঁটা ল্যাভেন্ডার অয়েল, কয়েক ফোঁটা টি ট্রি অয়েল এবং একটি বড় পাত্র নিন। দই গরম করুন এবং কলা ম্যাশ করুন। দই এবং কলা ভাল করে মিশিয়ে নিন। এর পরে তাতে চিনি মেশান। পেস্ট তৈরি হয়ে এলে তেল মিশিয়ে ভাল করে মেখে নিন। ১০ মিনিট পেস্টটি রেখে দিন। এরপরে পায়ে ম্যাসাজ করার জন্য এই পেস্টটি ব্যবহার করুন। কলা এবং দই ফুট মাস্ক ব্যবহার করার পদ্ধতি স্টেপ ১ – পা ম্যাসাজ করতে, একটা গামলায় হালকা গরম জল নিয়ে তাতে লেবু এবং মধু মিশিয়ে পা ডুবিয়ে রাখুন। স্টেপ ২ – এরপরে, জল থেকে পা বার করে নিন। তোয়ালে দিয়ে ভাল করে পা পরিষ্কার করে নিন। স্টেপ ৩ – দই এবং কলার তৈরি ফুট মাস্ক পায়ে ভালভাবে লাগান। স্টেপ ৪ – মাস্ক শুকানোর পরে ধীরে ধীরে পায়ে ম্যাসাজ করুন। তারপরে মাস্ক তুলে দিন। স্টেপ ৫ – মাস্ক অপসারণ করার পরে, হালকা গরম জল দিয়ে পা ধুয়ে নিন। তারপরে পায়ে কোল্ড ক্রিম লাগান। স্টেপ ৬ – কলা এবং দইয়ের ফুট মাস্ক সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার ব্যবহার করুন, এতে আপনার ফাটা গোড়ালি সহজেই ঠিক হয়ে যাবে! কলা এবং দই ফুট মাস্কের উপকারিতা পায়ের সৌন্দর্য বাড়াতে কলা এবং দই খুবই কার্যকর। দইতে ল্যাকটিক অ্যাসিড, আলফা হাইড্রোক্সি অ্যাসিড রয়েছে, যা মৃত ত্বকের নিরাময়ে সহায়তা করে। কলা ত্বককে ময়েশ্চরাইজ করতে সহায়তা করে। কলা ব্যবহার করে ফাটা গোড়ালি ঠিক করা যায়। ৩) গ্লিসারিন ও গোলাপ জলের ফুট মাস্ক তৈরির পদ্ধতি ৩) গ্লিসারিন ও গোলাপ জলের ফুট মাস্ক তৈরির পদ্ধতি ১ চামচ লেবুর রস, ১ চামচ গ্লিসারিন, ১ চামচ গোলাপ জল নিন। সমস্ত উপকরণ ভাল করে মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করুন। গ্লিসারিন ও গোলাপ জলের ফুট মাস্ক ব্যবহারের পদ্ধতি স্টেপ ১ – একটি গামলায় হালকা গরম জল নিন। স্টেপ ২ – এরপর তাতে ১ চামচ নুন, ১টি লেবুর রস, ১ কাপ গোলাপ জল মেশান। স্টেপ ৩ – এর মধ্যে ১৫ মিনিট পা ভিজিয়ে রাখুন। স্টেপ ৪ – তারপর খসখসে কিছু একটা দিয়ে পায়ের গোড়ালি ভাল করে ঘষে মৃত ত্বক তুলে ফেলুন এবং পা ধুয়ে নিন। স্টেপ ৫ – এরপর তৈরি করা মিশ্রণটি পায়ে লাগিয়ে সারারাত রেখে দিন। স্টেপ ৬ – সকালে হালকা গরম জল দিয়ে পা ধুয়ে ফেলুন। গ্লিসারিন ও গোলাপ জলের ফুট মাস্কের উপকারিতা সবেমাত্র পা ফাটা শুরু হলে এই ফুট মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন, দ্রুত উপকার পেতে পারেন। সপ্তাহে ২-৩ বার করলেই পা ফাটা একেবারে সেরে যাবে!

Read previous post:
চুইংগাম গিলে ফেললে কী হয়? জেনে নিন

তৃতীয় মাত্রা তৃতীয় মাত্রা স্বাস্থ্য ডেস্ক : অনেকেরই চুইংগাম চিবানোর শখ থাকে। বাচ্চা থেকে শুরু করে বড়, সবারই খুব পছন্দের...

Close

উপরে