Logo
বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০ | ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কোন কোন খাবারের সঙ্গে টক দই খাওয়া ক্ষতিকর

প্রকাশের সময়: ৫:০৬ অপরাহ্ণ - রবিবার | অক্টোবর ২৫, ২০২০

তৃতীয় মাত্রা

যদি আপনি পিঁয়াজের সঙ্গে টক দই খাওয়ার অভ্যাস করে থাকেন তবে তা আজই ত্যাগ করুন। টক দই শরীরকে ঠান্ডা রাখে। অন্যদিকে পিঁয়াজ শরীরকে গরম করে। দুটি সম্পূর্ণ বিপরীত।

মাছ ও টক দই, দুইই প্রোটিনের উৎস। কিন্তু এই ২টিকে একসঙ্গে খেতে বারণ করা হয়। অন্যদিকে গরুর দুধ থেকে তৈরি হয় টক দই। একটি নিরামিষ ও একটি আমিষ। ফলে হজমে সমস্যা করতে পারে।

মাছ ও টক দই, দুইই প্রোটিনের উৎস। কিন্তু এই ২টিকে একসঙ্গে খেতে বারণ করা হয়। অন্যদিকে গরুর দুধ থেকে তৈরি হয় টক দই। একটি নিরামিষ ও একটি আমিষ। ফলে হজমে সমস্যা করতে পারে।

আমের সঙ্গে টক দই খাওয়ার অভ্যাস থাকলে তা এখনই পরিত্যাগ করুক। শরীরের পক্ষে এটা ক্ষতিকারক। ত্বকের ক্ষতি করতে পারে এই অভ্যাস।

আমের সঙ্গে টক দই খাওয়ার অভ্যাস থাকলে তা এখনই পরিত্যাগ করুক। শরীরের পক্ষে এটা ক্ষতিকারক। ত্বকের ক্ষতি করতে পারে এই অভ্যাস।

ডালের সঙ্গে মিশিয়ে টক দই খেলেও হজমের সমস্যা হতে পারে।

ডালের সঙ্গে মিশিয়ে টক দই খেলেও হজমের সমস্যা হতে পারে।

দুধ ও টক দই একসঙ্গে খাওয়া যাবে না কিছুতেই। দুটো একসঙ্গে খেলে হজমের সমস্যা হতে পারে। দুটো একসঙ্গে মোটেই সুস্বাদু নয়।

দুধ ও টক দই একসঙ্গে খাওয়া যাবে না কিছুতেই। দুটো একসঙ্গে খেলে হজমের সমস্যা হতে পারে। দুটো একসঙ্গে মোটেই সুস্বাদু নয়।

যে কোনো রকম তৈলাক্ত খাবারের সঙ্গে টক দই খাওয়া উচিত নয়। তৈলাক্ত খাবারের সঙ্গে টক দই শরীরে ফ্যাট জমিয়ে দেয়।

যে কোনো রকম তৈলাক্ত খাবারের সঙ্গে টক দই খাওয়া উচিত নয়। তৈলাক্ত খাবারের সঙ্গে টক দই শরীরে ফ্যাট জমিয়ে দেয়।

Read previous post:
পূজার রেসিপি: গাজরের সন্দেশ

তৃতীয় মাত্রা পূর্জায় ঘরেই তৈরি করতে পারেন গাজরের সন্দেশ। পুষ্টিগুণে ভরপুর এই সবজি হাতের কাছেই পাবেন। আসুন জেনে নিই কীভাবে...

Close

উপরে