Logo
শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০ | ৭ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চাল-ডাল-গমের ক্ষেত্রে দেড় গুণ দাম বাড়লে তবে সরকারি হস্তক্ষেপ

প্রকাশের সময়: ৯:০৫ অপরাহ্ণ - বুধবার | সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০

তৃতীয় মাত্রা

১০০ টাকা কেজি দরের মুগ ডালের দাম বেড়ে অন্তত ১৫০ টাকা না-হলে কেন্দ্রীয় সরকার আর মাথা ঘামাবে না। পেঁয়াজের দাম ৪০ টাকা কেজি থেকে দ্বিগুণ বেড়ে ৮০ টাকা হলে তবেই সরকার নাক গলাবে।

চাল, ডাল, আলু, পেঁয়াজ, গম, ভোজ্য তেল, তৈলবীজ যত ইচ্ছে মজুত করার ছাড়পত্র দিতে অত্যাবশ্যক পণ্য আইনে সংশোধন বিলও সংসদে পাশ হয়ে গেল। লোকসভায় আগেই হয়ে গিয়েছিল। আজ বিরোধীরা রাজ্যসভার অধিবেশন বয়কট করার পরে বিনা বাধায় মোদী সরকার এই বিল পাশ করিয়ে নিল। এ বার থেকে যুদ্ধ, দুর্ভিক্ষ, প্রাকৃতিক বিপর্যয় ও অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি ছাড়া খাদ্যশস্য মজুতে কোনও বিধিনিষেধ থাকবে না। আনাজের মতো পচনশীল খাদ্যপণ্যের ক্ষেত্রে দাম বেড়ে দ্বিগুণ হলে তবেই তা অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি বলে ধরা হবে। অর্থাৎ চাল-ডাল-গমের ক্ষেত্রে দেড় গুণ দাম বাড়লে তবে সরকার হস্তক্ষেপ করবে। কালোবাজারি, মজুতদারি রুখতে ১৯৫৫ সালে অত্যাবশ্যক পণ্য আইন চালু হলেও এখন তাতে সংশোধন দরকার— এই যুক্তি দিয়ে সংসদে খাদ্য ও গণবণ্টন প্রতিমন্ত্রী দানভে দাদারাও বলেন, ‘‘এতে চাষিদেরও লাভ, ক্রেতাদেরও লাভ।’’

লকডাউনের মধ্যেই মোদী সরকার কৃষি ক্ষেত্রের তিনটি অধ্যাদেশ জারি করেছিল। বেসরকারি সংস্থাগুলি যাতে চুক্তির ভিত্তিতে চাষ করিয়ে নিয়ে সরাসরি চাষিদের থেকে ফসল, আনাজ কিনে নিতে পারে এবং সে ক্ষেত্রে চাষিরা যাতে ঠিকমতো ফসলের দাম পান, তার জন্য কৃষি পণ্য ব্যবসা-বাণিজ্য উন্নয়ন ও কৃষকদের চুক্তি চাষে সুরক্ষা ও ফসলের মূল্য নিশ্চিতকরণ বিল আগেই সংসদে পাশ হয়ে গিয়েছে। এই দু’টি বিল নিয়েই বিরোধীদের আপত্তি না-শোনায় রবিবার রাজ্যসভায় তুলকালাম হয়। আজ অত্যাবশ্যক পণ্য আইনে সংশোধন বিল পাশ হওয়ায় কৃষি সংস্কারের তিন অধ্যাদেশকেই পাকা আইনের চেহারা দিতে আর বাধা থাকল না।

সংগৃহীত : আনন্দবাজার পত্রিকা

Read previous post:
সিলেটে বহু প্রত্যাশিত ই-পাসপোর্ট সেবা পুরোদমে চালু

তৃতীয় মাত্রা প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেটে বহু প্রত্যাশিত ই-পাসপোর্ট সেবা পুরোদমে চালু হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সিলেটে ই-পাসপোর্টের আবেদন গ্রহণের পাশাপাশি...

Close

উপরে