Logo
বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২০ | ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বশেমুরবিপ্রবি’র নবনিযুক্ত উপাচার্য ড. এ কিউ এম মাহবুব 

প্রকাশের সময়: ২:৩৩ অপরাহ্ণ - বৃহস্পতিবার | সেপ্টেম্বর ৩, ২০২০

তৃতীয় মাত্রা

মেহেদী হাসান সাকিব, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ গোপালগঞ্জে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব পেলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভুগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড.এ.কিউ.এম মাহবুব।বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের যুগ্মসচিব সৈয়দ আলী রেজার স্বাক্ষরিত একটি প্রজ্ঞাপন থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলরের অনুমোদনক্রমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় আইন, ২০০১ এর ধারা (১) অনুযায়ী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক (অবসরপ্রাপ্ত) ড. এ কিউ এম মাহবুবকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, গোপালগঞ্জের ভাইস চ্যান্সেলর (ভিসি) পদে ৪ বছর মেয়াদে নিয়োগ করা হলো।প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, তিনি (অধ্যাপক ড. এ কিউ এম মাহবুব) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নির্বাহী কমকর্তা হিসেবে ক্যাম্পাসে সব সময় অবস্থান করবেন। তবে মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর মনে করলে নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার আগে তার এ নিয়োগ বাতিল করতে পারবেন।এর আগে গত বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে পদত্যাগ করেন তৎকালীন ভিসি অধ্যাপক ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন। এরপর ৭ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেক্ট্রনিক্স এন্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (ইটিই) বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. শাহজাহানকে ভারপ্রাপ্ত ভিসি হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া দিয়েছিল সরকার। এ ঘটনার ১১ মাস পর স্থায়ী ভিসি পেল বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ৮ টি অনুষদ, ৩টি ইনস্টিটিউট, ৩৪টি বিভাগসহ প্রায় ১২,০০০ শিক্ষার্থী নিয়ে সফলভাবে পরিচালিত হচ্ছে। বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়টি শিক্ষার্থী ভর্তির দিক থেকে বাংলাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে চতুর্থ স্থানে অবস্থান করছে।

Read previous post:
পাথরঘাটায় ভরা মৌসুমে ও নেই ইলিশ

তৃতীয় মাত্রা মেহেদী হাসান, পাথরঘাটা:সাধ থাকলেও সাধ্যের বাইরে এখন ইলিশ। মন চাইলেও সুস্বাদু ইলিশের ঘ্রাণ বা স্বাদ মুখে নিতে পারছেন...

Close

উপরে