Logo
মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০ | ৩০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সীমিত সংখ্যক রাইড শেয়ারিং চালুর অনুমতি

প্রকাশের সময়: ৯:৫২ অপরাহ্ণ - রবিবার | জুন ২১, ২০২০

তৃতীয় মাত্রা

করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতার কারণে দীর্ঘদিন ধরেই অ্যাপসভিত্তিক রাইড শেয়ার বন্ধ করে দেয় বিআরটিএ। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সার্টিফিকেটপ্রাপ্ত ২৫৫টি মোটরযান চলাচলের অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি বিবেচনা করে রাইড শেয়ারিং অ্যাপসের মাধ্যমে মোটরসাইকেল চালানোর অনুমতি দেওয়া হয়নি।

রবিবার ( ২১ জুন) বিআরটিএ থেকে দেওয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিকালীন রাইড শেয়ারিং সার্ভিস পরিচালনার নিমিত্তে বিআরটিএ থেকে এনলিস্টমেন্ট সার্টিফিকেটপ্রাপ্ত রাইড শেয়ারিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের অ্যাপস ব্যবহার করে শুধু এনলিস্টমেন্ট সার্টিফিকেটপ্রাপ্ত মোটরকার, জিপ, মাইক্রোবাস ও অ্যাম্বুলেন্স (মোটরসাইকেল ছাড়া) স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে আজ (২১ জুন) থেকে ঢাকা মেট্রো, গাজীপুর মেট্রো, ঢাকা জেলা, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, নরসিংদী ও গাজীপুর জেলা এলাকায় চলাচলের জন্য অনুমতি প্রদান করা হলো।

‘রাইড শেয়ারিং সার্ভিস নীতিমালা-২০১৭’ অনুযায়ী রাইড শেয়ারিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের অ্যাপসের মাধ্যমে রাইড শেয়ারিং মোটরযান এনলিস্টমেন্ট সার্টিফিকেট ছাড়া এই সার্ভিস পরিচালনার কোনো সুযোগ নেই। করোনাভাইরাসকালীন পরিস্থিতিতে রাইড শেয়ারিং অ্যাপসের মাধ্যমে সামাজিক দূরত্ব মেনে মোটরসাইকেলে যাত্রী পরিবহন করা সম্ভব নয় বিধায় রাইড শেয়ারিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের অ্যাপস ব্যবহারের মাধ্যমে মোটরসাইকেল চলাচলের অনুমতি প্রদান সম্ভব হলো না।

চলমান পরিস্থিতিতে যেসব মোটরকার, ক্লিপ, মাইক্রোবাস ও অ্যাম্বুলেন্স রাইড শেয়ারিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের অ্যাপস ব্যবহারের মাধ্যমে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে যাত্রী পরিবহন করতে পারবে, এনলিস্টমেন্ট সার্টিফিকেটপ্রাপ্ত এমন ২৫৫টি মোটরযানের তালিকাও বিআরটিএ থেকে প্রকাশ করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, এই নির্দেশনা অমান্য করলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Read previous post:
বিআরটিএ’র সব সার্কেল অফিসে গাড়ির ফিটনেস নবায়ন করা যাবে

তৃতীয় মাত্রা দশ বছরের অধিক সময় ধরে ফিটনেসবিহীন মোটরযান চলাচল বন্ধ করতে চাইছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। আগামী ৩০...

Close

উপরে