Logo
শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মসজিদসহ সব উপাসনালয় খুলে না দিলে গভর্নরদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

প্রকাশের সময়: ১১:০২ পূর্বাহ্ণ - শনিবার | মে ২৩, ২০২০

তৃতীয় মাত্রা

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি সত্ত্বেও যুক্তরাষ্ট্রের সব মসজিদ, গির্জা, সিনাগগসহ সব ধরনের উপাসনালয় আজ-কালের মধ্যে খুলে দিতে গভর্নরদের নির্দেশ দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। নির্দেশ পালনে ব্যর্থ হলে গভর্নরদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ারও হুমকি দিয়েছেন তিনি। খবর কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার।

এর আগে ইস্টার সানডে উপলক্ষে গত ১২ এপ্রিল দেশের সব গির্জা খুলে দেয়ার পক্ষে ছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তবে এতে বাধ সাধেন তার প্রশাসনের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। তারা সতর্ক করে দেন, এই সময়ে গির্জা খুলে দিলে তা হবে ঝুঁকিপূর্ণ। পরে গির্জা খুলে দেয়ার পরিকল্পনা থেকে সরে আসেন ট্রাম্প। তবে বিধি-নিষেধ কিছুটা শিথিল হওয়ার কারণে সম্প্রতি কিছু কিছু অঙ্গরাজ্যে গির্জা খুলতে শুরু করেছে। তবে শুধু গির্জা নয়, এখন দেশের সব উপাসনালয় খুলে দেয়ার পক্ষে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

শুক্রবার হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘আজ আমি স্বীকৃতি দিচ্ছি যে, গির্জা, সিনাগগ, মসজিদ-সব ধরনের উপাসনালয় গুরুত্বপূর্ণ সেবা দিয়ে আসছে। এই জায়গাগুলো সমাজের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি করে এবং আমাদেরকে জনগণকে একতাবদ্ধ হতে সাহায্য করে। জনগণও গির্জা, সিনাগগ ও মসজিদে যেতে চায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘কিছু গভর্নর মনে করেন যে, শুধু মদের দোকান ও গর্ভপাত ক্লিনিকগুলোই খুলে দেয়াটাই অপরিহার্য, তাদের কাছে গির্জা খুলে দেয়াটা অপরিহার্য নয়। এটা ঠিক নয়। তাই আমি এ ধরনের অবিচার সংশোধন করে দিচ্ছি এবং বলতে চাই যে, উপাসনালয়গুলো খুলে দেয়াটাও অপরিহার্য।’

তার এ নির্দেশ পালনে গাফিলতি দেখালে অঙ্গরাজ্যের গভর্নরদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেন, ‘যদি গভর্নররা আমার কথামতো উপাসনালয়গুলো খুলে দেয়ার ব্যবস্থা না নেয় তাহলে আমরা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।’ তবে তাদের বিরুদ্ধে কী ধরনের ব্যবস্থা নেবেন তা নির্দিষ্টভাবে উল্লেখ করেননি ডোনাল্ড ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ১৬ লাখ ৪৫ হাজার ৯৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়। মারা গেছেন ৯৭ হাজার ৬৪৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২৪ হাজারেরও বেশি। আর মারা গেছেন ১ হাজার ২৯৬ জন। এই অবস্থায় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এমন সিদ্ধান্তে জোর সমালোচনা শুরু হয়েছে।

তার এ সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে সাবেক ফেডারেল প্রসিকিউটর রেনাটো মারিওট্টি এক টুইটবার্তায় লিখেছেন, ‘রাজ্যের গভর্নররা ট্রাম্পের জন্য কাজ করেন না। তাই প্রেসিডেন্সিয়াল ডিক্রি জারি করে তিনি তাদের শাস্তি দিতে পারেন না।’

Read previous post:
কর্ণফুলী উপজেলায় প্রধান মন্ত্রীর উপহার ২০০ পরিবারের মাঝে শিশু খাদ্য বিতরণ!

তৃতীয় মাত্রা ওসমান হোসাইন (কর্ণফুলী)চট্টগ্রাম : করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমন প্রতিরোধে সৃষ্ট সংকট মোকাবেলার অংশ হিসেবে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ...

Close

উপরে