Logo
বৃহস্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০ | ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রোজায় কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা?

প্রকাশের সময়: ১০:০৬ পূর্বাহ্ণ - সোমবার | মে ১১, ২০২০

তৃতীয় মাত্রা

রোজার সময় এই সমস্যা দেখা দেয় অনেকের। পানি কম খাওয়া, অতিরিক্ত ভাজাপোড়া খাওয়া কিংবা শাক-সবজি কম খাওয়া ইত্যাদি নানা কারণে কোষ্ঠকাঠিন্য দেখা দেয়। যতই বাথরুমে গিয়ে বসে থাকুন, পেট পরিষ্কার হবে না। আর সব সময় পেট ভরে থাকার মতো একটা অনুভূতি কাজ করবে। যে কারণে আপনি নতুন করে কিছু খেতেও পারবেন না।

যদি আপনিও এমন সমস্যায় ভুগে থাকেন তবে খেয়াল করুন খাবার হজম ঠিকভাবে হচ্ছে কি না। চিকিৎসকের পরামর্শে ওষুধ খেতে পারেন, তবে তার নানা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও কিন্তু রয়েছে। ওষুধ না কিনে বরং ঘরেই পেতে পারেন সমাধান। জেনে নিন কী খাবেন-

নাসপাতি: নাসপাতি খেতে হবে রস করে। এর মধ্যে আছে সরবিটল। এই সরবিটল মলের নির্গমনে বাঁধা দূর করে, তাই এই রস কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে ভীষণ কার্যকরী। এর সঙ্গে মিশিয়ে নিতে পারেন সামান্য লেবুর রস। লেবুর রসে আছে ভিটামিন ও মিনারেল যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

দু’টি নাসপাতির বীজ বের করে ফেলে দিন। নাশপাতি ছোট ছোট টুকরা করে কেটে নিন। এবার ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। একটি ছাকনিতে রস ছেঁকে নিন। এবার দুই চামচ লেবুর রস ও একটি চিমটি লবণ মেশান। এবার খেয়ে নিন। ইফতারে এটি খেলে ভালো ফল পাবেন।

আপেল: আপেলে যে প্রচুর ফাইবার আছে, একথা আমরা সবাই জানি। আরও আছে ভিটামিন আর মিনারেল। আপেলের রস কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে আপনাকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে। এর সঙ্গে সামান্য মৌরি গুঁড়া করে মিশিয়ে নিতে পারেন। মৌরিতে আছে ডায়াটেরি ফাইবার। এটি মলের মধ্যে পানির অংশ যোগ করে মল করে নরম।

একটি আপেলের বীজ বের করে ফেলে দিন। আপেলটি ছোট ছোট টুকরা করে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। আধা কাপ পানি মেশান। এবার একটি ছাঁকনিতে ছেঁকে রসটুকু বের করে নিন। এর সঙ্গে আধা চা চামচ মৌরির গুঁড়া মেশান। এরপর খেয়ে নিন। সাহরি বা ইফতার, আপনার সুবিধামতো সময়ে তৈরি করে খান এটি।

কমলা: ভিটামিন সি এর ঘাটতি পূরণে কাজ করে কমলা। এতে আছে ভিটামিন সি, মিনারেল আর ডায়াটেরি ফাইবার। ডায়াটেরি ফাইবার মলে পানি শোষণ ক্ষমতা বাড়ায়, মল তাই নরম হয়।

একটি কমলা খোসা ছাড়িয়ে নিন। ব্লেন্ড করে রসটুকুর সঙ্গে সামান্য লবণ মিশিয়ে নিতে পারেন। এবার খেয়ে নিন। এটিও আপনাকে কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি দেবে।

লেবু: লেবু যে শুধু কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে তা-ই নয়, এটি আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়িয়ে তোলে। এর সঙ্গে জিরা ও মধু যোগ করে খেলে তো কথাই নেই!

একটি লেবুর অর্ধেকটা নিয়ে রস বের করে নিন। এককাপ গরম পানি নিন। এবার গরম পানিতে লেবুর রসটুকু মেশান। সঙ্গে মেশান এক চা চামচ মধু ও আধা চা চামচ জিরা গুঁড়া। ভালো করে মিশিয়ে খেয়ে নিন। কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি মিলবে সহজেই।

Read previous post:
আজও ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস, নদীবন্দরে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত

ফাইল ছবি তৃতীয় মাত্রা দেশের বেশকিছু অঞ্চলের ওপর দিয়ে ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝড়-বৃষ্টি বয়ে যেতে পারে। এসব অঞ্চলের...

Close

উপরে