Logo
রবিবার, ৩১ মে, ২০২০ | ১৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পরীক্ষাসহ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম স্থগিত

প্রকাশের সময়: ৭:০৮ অপরাহ্ণ - শনিবার | মার্চ ২৮, ২০২০

তৃতীয় মাত্রা

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা ও পরীক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় সকল কার্যক্রম করোনাভাইরাস পরিস্থিতি অবনতির কারণে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। পরীক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় নির্দেশনা পরবর্তীতে জানিয়ে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

শনিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ, তথ্য ও পরামর্শ দপ্তরের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ ফয়জুল করিম।

তিনি জানান, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা ও পরীক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় সকল কার্যক্রম করোনাভাইরাস পরিস্থিতি অবনতির কারণে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। দেশের সার্বিক অবস্থা বিচেনা করেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কোন আক্রান্ত রোগী নেই। এছাড়া আক্রান্তদের মধ্য থেকে চারজন সুস্থ হয়েছেন। এই নিয়ে আক্রান্ত ৪৮ জনের ১৫ জন হলো সুস্থ হলো।

শনিবার বেলা ১২টার দিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা করোনাভাইরাস সংক্রান্ত অনলাইন লাইভ ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান।

ব্রিফিংয়ে সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, যারা এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন, সর্বোচ্চ ১৬ দিন চিকিৎসাধীন থাকতে হয়েছে তাদের। এছাড়া করোনা আক্রান্ত একজন কিডনি রোগীও ভালো হয়েছে।

ফ্লোরা আরো জানান, এরই মধ্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একটি সমন্বিত কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৬৮টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এছাড়া চট্টগ্রামে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে মোট আটটি। তিনি সবাইকে বাড়িতে অবস্থান করার অনুরোধ জানান।

‘এ পর্যন্ত এক হাজার ৬৮টি নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করেছে আইইডিসিআর। গত ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৪২ জনের নমুনা। এছাড়াও চট্টগ্রামে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশন ডিজিজ (বিআইটিআইডি)-এ গত ২৪ ঘণ্টায় পাঁচটিসহ সর্বমোট আটটি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।’

তিনি জানান, এসব নমুনা পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কোনও সংক্রমিত রোগী পাওয়া যায়নি। অর্থাৎ এখনও মোট নিশ্চিত রোগীর সংখ্যা ৪৮।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় আইইডিসিআর এর হটলাইনে কোভিড-১৯ নিয়ে তিন হাজার ৪৫০টি কল এসেছে বলেও জানান তিনি।

ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, যারা করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছিলেন, তাদের মধ্যে ১৫ জন এখন পুরোপুরি সুস্থ, কোনও সংক্রমণ নেই। এর মধ্যে ৯ জন পুরুষ এবং ছয়জন নারী, তাদের বয়স দুই বছর থেকে সর্বোচ্চ ৫৪ বছর।

অন্যদিকে, বিশ্বব্যাপী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৯৭ হাজার ৪৫৮ জন। মারা গেছেন ২৭ হাজার ৩৭০ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৩৩ হাজার ৩৭৩ জন। বর্তমানে ৪ লাখ ৩৬ হাজার ৭১৫ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদের মধ্যে ৪ লাখ ১৩ হাজার ১৫৬ জনের অবস্থা স্থিতিশীল এবং ২৩ হাজার ৫৫৯ জনের অবস্থা শংকটাপন্ন।

Read previous post:
আপনি থাকুন, দোকানই যাবে আপনার ঘরে!

  তৃতীয় মাত্রা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনায় আঁচ পড়েছে বাংলাদেশেও। আর তাই এ ভাইরাস থেকে দেশে মানুষকে বাঁচাতে নানান উদ্যোগ...

Close

উপরে