Logo
শনিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৯ | ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বুলবুলের প্রভাব পড়েনি কক্সবাজার উপকূলে

প্রকাশের সময়: ৮:৪৯ অপরাহ্ণ - রবিবার | নভেম্বর ১০, ২০১৯

তৃতীয় মাত্রা

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় বুলবুল কক্সবাজার উপকূলে কোনো প্রভাব ফেলেনি। এ কারণে কক্সবাজারের সেন্টমাটিন্স থেকে কুতুবদিয়া দ্বীপ পর্যন্ত কোনো ক্ষয়ক্ষতিও হয়নি। সাগরে যেমনি জোয়ারের পানি দৃশ্যমান বাড়েনি তেমনি উপকূলীয় এলাকায় বয়ে যায়নি ঝড়ো হাওয়াও।

ফলে রক্ষা পেয়েছে দেশের প্রধান পর্যটন শহর কক্সবাজারসহ বিস্তীর্ণ উপকূলীয় এলাকা। সেই সাথে ঝড়ের তাণ্ডবে ম্যাচাকার হওয়া থেকে রক্ষা পেয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় শরণার্থী ক্যাম্প কুতুপালং সহ উখিয়া-টেকনাফের ৩২টি রোহিঙ্গা শিবির। কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন জানিয়েছেন, ঝড়ের সম্ভাব্য আঘাত থেকে কক্সবাজার রক্ষা পেয়েছে। তবে সকাল থেকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিপাত অব্যাহত রয়েছে।

যদিওবা কক্সবাজার উপকূলে আবহাওয়া অফিসেরও মাত্র ৪ নম্বর সতর্ক সংকেত ছিল। তারপরেও জেলার কুতুবদিয়া, মহেশখালীর ধলঘাটা, মাতারবাড়ী, পেকুয়া উপজেলার মগনামা, রাজাখালী, সেন্টমার্টিন্স দ্বীপসহ বিভিন্ন উপকূলীয় ইউনিয়নে ঘূর্ণিঝড়ের প্রস্তুতি উপলক্ষে স্থানীয় প্রশাসন যাবতীয় প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছিল।

মহেশখালীর ধলঘাটা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুল হাসান, মাতারবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাসটার মোহাম্মদ উল্লাহ, কুতুবদিয়া উপজেলার উত্তর ধুরুং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আ স ম শাহরিয়ার চৌধুরী জানিয়েছেন, দ্বীপের লোকজন ঝড়-জলোচ্ছাসের আশঙ্কা করলেও শেষ পর্যন্ত কিছুই হয়নি। ঘূর্ণিঝড়ের ছোবল থেকে কক্সবাজার জেলা অক্ষত থাকায় লোকজন এখন স্বস্থিতে রয়েছেন।

এদিকে টানা তিন দিনের ছুটিতে কক্সবাজারে বেড়াতে আসা পর্যটকদের বেশির ভাগই শনিবারই নিজ নিজ গন্তব্যে ফিরে গেছেন। যারা অবস্থান করছেন তারা যথারীতি আজ রবিবার সৈকতে আনন্দ-ফুর্তিতে মেতে উঠেছেন। অপরদিকে প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন্সে বেড়াতে গিয়ে আটকা পড়া সহস্রাধিক পর্যটক ভালো রয়েছেন। দ্বীপ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুর আহমদ আজ সন্ধ্যায় জানিয়েছেন, পর্যটকদের থাকা-খাওয়া সহ সবকিছুর ব্যাপারে জেলা প্রশাসনের নির্দেশে তিনি তদারকি করছেন।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন জানিয়েছেন, কক্সবাজারের সাথে আকাশ ও সড়ক পথে বিমান এবং যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক থাকায় বেড়াতে আসা পর্যটকরাও ইচ্ছামত গন্তব্যে যাতায়াত করছেন। কক্সবাজার বিমান বন্দর কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, আজ রবিবার ঢাকা-কক্সবাজার আকাশ পথে ১২টি এবং আগের দিন শনিবারও অনুরুপ সংখ্যক ফ্লাইট যাতায়াত করেছে।

 

Read previous post:
‘বুলবুল’ আক্রান্ত এলাকায় পর্যাপ্ত খাদ্য মজুদ রয়েছে : খাদ্যমন্ত্রী

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। ছবি: সংগৃহীত তৃতীয় মাত্রা খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ আক্রান্ত এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সহযোগিতার...

Close

উপরে