Logo
শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ আসছে আজ

প্রকাশের সময়: ৯:৪৩ পূর্বাহ্ণ - শনিবার | সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯

তৃতীয় মাত্রা

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চতুর্থ বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ শনিবার বিকালে দেশে আসছে। এটি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ১৬তম বিমান হতে যাচ্ছে।

শুক্রবার বিমানের উপ-মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার জানান, আগামী মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’-এর শুভ উদ্বোধন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

বিমান বাংলাদেশ সূত্র জানিয়েছে, শনিবার ৩টা ৪৫ মিনিটের সময় ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উড়োজাহাজটি ঢাকা হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে এসে অবতরণের কথা রয়েছে। ইতোমধ্যে ‘রাজহংসে’র চাবি বিমানকে বুঝিয়ে দিয়েছে বোয়িং কোম্পানী।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় ১৩ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টায় বিমানের চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ ঢাকার উদ্দেশ্যে উড্ডয়ন করছে। বাংলাদেশ সময় শনিবার বিকেল ৩ টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দওে পৌঁছার কথা রয়েছে।

এ উড়োজাহাজ যুক্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে বিমান বহরে উড়োজাহাজের সংখ্যা দাঁড়াবে ১৬টি। দেশে পৌঁছার পর ড্রিমলাইনারকে ওয়াটার ক্যানন স্যালুটের মাধ্যমে স্বাগত জানানো হবে।

বিমান বাংলাদেশ-এর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বিমানকে উড়োজাহাজের মালিকানা হস্তান্তর করেন বোয়িং পরিচালক (ডেলিভারি কন্টাক্ট) জন বর্বার এবং বিমানের পক্ষে পরিচালক (প্রকিওরমেন্ট অ্যান্ড লজিস্টিক সাপোর্ট) মো. মমিনুল ইসলাম চাবি বুঝে নেন।

এ সময় বিমানের চেয়ারম্যান এয়ার মার্শাল (অব.) মোহাম্মদ ইনামুল বারী, পরিচালক (প্রশাসন) জিয়াউদ্দিন আহমেদ, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সিনিয়র পাইলট সোহেল চৌধুরীসহ বিমান ও বোয়িংয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

তাহেরা খন্দকার জানান, আগামী মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’-এর শুভ উদ্বোধন করবেন।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ২০০৮ সালে মার্কিন উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িং কোম্পানির সঙ্গে ১০টি নতুন বিমান ক্রয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়। ইতিমধ্যে চারটি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, দুটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও তিনটি বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ বিমান বহরে যুক্ত হয়ছে। চতুর্থ এবং শেষ উড়োজাহাজ ‘রাজহংস’ বৃহস্পতিবার দেশে আসছে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হতে যাওয়া চারটি ড্রিমলাইনারের নাম পছন্দ ও বাছাই করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এগুলো হলো আকাশবীণা, হংসবলাকা, গাঙচিল ও রাজহংস।

এর আগে চারটি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, দুটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ইআর এর নামও প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া। এগুলো হলো, পালকি, অরুণ আলো, আকাশ প্রদীপ, রাঙা প্রভাত, মেঘদূত এবং ময়ূরপঙ্খী।

জানা গেছে, রাজহংসের আসন সংখ্যা ২৭১টি। অন্যান্য বিমানের তুলনায় এতে ২০ শতাংশ জ্বালানী সাশ্রয় হয়। বিমানটি ঘন্টায় গড়ে ৬৫০ মাইল বেগে একটানা ১৬ ঘন্টা উড়তে সক্ষম।

বিমানটিতে আকাশের ৪৩ হাজার ফুট উঁচুতেও যাত্রীদের ওয়াই-ফাই সেবা প্রদানে সক্ষম। যাত্রীরা এর মাধ্যমে বিশ্বের যে কোন স্থানে অবস্থানরত তাদের বন্ধু ও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন।

 

Read previous post:
অবশেষে কাশ্মীর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলো মোদি সরকার

তৃতীয় মাত্রা আর্ন্তজাতিক চাপের মুখে অবশেষে অধিকৃত জম্মু ও কাশ্মীরে ওপর ভারতের আরোপিত নিষেধাজ্ঞা পুরোপুরি তুলে নিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।...

Close

উপরে