Logo
শনিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৯ | ৯ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নতুন কোচ খুঁজছে ভারত

প্রকাশের সময়: ১২:২১ অপরাহ্ণ - বুধবার | জুলাই ১৭, ২০১৯

তৃতীয় মাত্রা :

বিশ্বকাপে ব্যর্থতার জের ধরে বড়ো একটা রদবদলই হতে চলেছে ভারতীয় ক্রিকেটে। কোচ রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে মেয়াদ লম্বা মেয়াদে আর বাড়াচ্ছে না বোর্ড অব কনট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই)। কারণ, নতুন প্রধান কোচ ও কোচিং স্টাফ চেয়ে বিজ্ঞাপন দিয়েছে বিসিসিআই।

গুঞ্জন আছে বিসিসিআই, ফরম্যাট ভেদে আলাদা আলাদা অধিনায়ক নিয়োগ দেবে। বিরাট কোহলির ওপর থেকে চাপ কমানোর জন্য তাকে কেবল টেস্টের দায়িত্বেই রাখা হবে। আর ওয়ানডে দলের অধিনায়কত্ব পেতে পারেন রোহিত শর্মা। দুই জনকে ভিন্ন ভিন্ন দায়িত্ব দেওয়ার একটা কারণের খবরও শোনা গেছে। বিশ্বকাপ চলাকালেই নাকি দলের শীর্ষ দুই ক্রিকেটারের মধ্যে দ্বন্দ্ব দেখা গিয়েছিল। যদিও, ফরম্যাট ভেদে আলাদা অধিনায়ক নিয়োগের ব্যাপারে এখন অবধি কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি।

মঙ্গলবার বিসিসিআই কোচ নিয়োগের বিজ্ঞাপন দেয়। তাতে শুধু প্রধান কোচই নয়—ব্যাটিং কোচ, বোলিং কোচ, ফিল্ডিং কোচ, ফিজিওথেরাপিস্ট, স্ট্রেন্থ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ ও অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ম্যানেজার চেয়েও বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়েছে। আগ্রহীদের আগামী ৩০ জুলাইয়ের মধ্যে আবেদন করতে বলা হয়েছে। বিজ্ঞাপনে, কোচদের বয়স ৬০-এর নিচে হতে হবে। এর বাদে কমপক্ষে দুই বছর কোনো টেস্ট খেলুড়ে আন্তর্জাতিক দল কিংবা সহযোগী দেশ, এ দল বা আইপিএলের দলগুলোতে কমপক্ষে তিন বছর কোচিং করানোরও অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

শুধু তাই নয়, খেলোয়াড়ি জীবনে তাকে অন্তত ৩০টা টেস্ট ও ৫০টা ওয়ানডে খেলতে হবে। যদিও, ব্যাটিং-বোলিং ও ফিল্ডিং কোচদের জন্য এ নিয়ম কিছুটা শিথিল করা হয়েছে। তাদের কমপক্ষে ১০ টেস্ট ও ২৫টি ওয়ানডে খেলার অভিজ্ঞতা লাগবে।

২০১৭ সালে সাবেক কোচ অনিল কুম্বলের বিদায়ের পর জুলাইয়ে কোহলিদের পছন্দের ভিত্তিতেই প্রধান কোচ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন শাস্ত্রী। শাস্ত্রী এর আগেও ২০১৪’র আগস্ট থেকে ২০১৬’র জুন পর্যন্ত দলের ক্রিকেট পরিচালক ছিলেন। তার অধীনে ভারত ওয়ানডেতে অনেক বড় কোনো সাফল্য না পেলেও ধারাবাহিক পারফরম করে গেছে। তবে, শাস্ত্রীর সবচেয়ে বড় অর্জন হলো প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ভারতকে টেস্ট সিরিজ জেতানো।

এবারও অবশ্য শাস্ত্রী ও তার বর্তমান সহকর্মীদের একটা সুযোগ থাকছে। কারণ তারা সরাসরিই নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সুযোগ পাবেন বলে বিসিসিআই এক বিবৃতিতে জানিয়েছে। তবে, আপাতত শাস্ত্রী, বোলিং কোচ ভারত অরুণ, ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় ব্যাঙ্গার ও ফিল্ডিং কোচ এস. শ্রীধরের মেয়াদ ৪৫ দিন বাড়ানো হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরকে সামনে রেখে। সিরিজ চলবে আগামী তিন আগস্ট থেকে ৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ভারত নিজেদের মাটিতে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ শুরু করবে। এর আগেই নতুন কোচের নিয়োগ পেয়ে যাওয়ার কথাই।

সম্ভবত সেই সিরিজ থেকে, কিংবা ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরেই দ্বৈত অধিনায়কত্ব ফিরে আসতে পারে ভারতীয় ক্রিকেটে। বিসিসিআইয়ের উচ্চপদস্থ এক কর্মকর্তা বলেন, ‘রোহিত শর্মাকে ৫০ ওভারের ফরম্যাটে অধিনায়কত্ব দেওয়ার এটাই সঠিক সময়। সেটা করলে বর্তমান অধিনায়ককেই আসলে বড় একটা সমর্থন করা হবে। এতে বিরাটের চাপ অনেকটাই কমে যাবে। বোর্ডের জন্যও আগামী বিশ্বকাপকে সামনে রেখে নতুন পরিকল্পনা করা ও সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা সহজ হবে। আমাদের এ ব্যাপারটা ভেবে দেখতে হবে। রোহিত এ কাজের জন্য যোগ্য ব্যক্তি।’

বিশ্বকাপ চলাকালে বিরাট-রোহিতের দ্বন্দ্বের খবরও একদম উড়িয়ে দিলেন না এ কর্মকর্তা। তিনি জানান, সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্সের প্রধান বিনোদ রাই শিগগিরই বিশ্বকাপ বিষয়ক পর্যালোচনামূলক একটা বৈঠকে বসবেন। সেখানেই এ ব্যাপারটা নিয়ে খোলাখুলি আলোচনা হবে।

Read previous post:
বিশ্বকাপ জিতিয়ে নাইটহুড উপাধি পাচ্ছেন স্টোকস

তৃতীয় মাত্রা : জন্ম নিউজিল্যান্ডে। তবে খেলোয়াড়ী জীবনে এসে বনে গেছেন পুরোপুরি ইংলিশ। ইংল্যান্ডের নাগরিকত্বও নিয়েছেন তিনি। নিজ দেশ ছেড়ে...

Close

উপরে