Logo
বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শেখ হাসিনার ট্রেনে গুলিবর্ষণের মামলার রায় বুধবার

প্রকাশের সময়: ৬:৪৩ অপরাহ্ণ - সোমবার | জুলাই ১, ২০১৯

তৃতীয় মাত্রা

দীর্ঘ ২৫ বছর আগে বিএনপি আমলে পাবনার ঈশ্বরদীতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে গুলির মামলার রায় বুধবার ঘোষণা করা হবে বলে আদেশ দিয়েছে আদালত। সোমবার যুক্তিতর্ক শুনানি শেষে পাবনার অতিরিক্ত দায়রা জজ রোস্তম আলী রায়ের দিন ঠিক করে এই আদেশ দেন।

এর আগে, রোববার মামলার সাক্ষ্য ও জেরা শেষে একই বিচারক ৩০ আসামির জামিন বাতিল করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

পাবনার জজ আদালতের পিপি আখতারুজ্জামান মুক্তা বলেন, ৩৮ জনের সাক্ষ্য নিয়ে আদালত বিচারকাজ শেষ করেছে। তারা যে সাক্ষ্য দিয়েছেন তাতে হামলার ঘটনায় আসামিদের সংশ্লিষ্টতা প্রমাণিত হয়েছে। বুধবার আদালত যে রায় ঘোষণা করবে তাতে আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে বলে আশা করছি।

তবে আসামিপক্ষের আইনজীবী মাসুদ খন্দকার বলেন, এ মামলায় উচ্চ আদালতে লিভ টু আপিল চলমান। এর পরও রায়ের দিন ঠিক হয়েছে। কোনো সাক্ষীই সুনির্দিষ্টভাবে অভিযুক্ত আসামিরাই যে বোমাবাজি ও গুলি করেছে তা বলেননি। রাজনৈতিক প্রভাবমুক্ত রায় হলে অবশ্যই আসামিরা খালাস পাবেন।

এই মামলার প্রধান আসামি ঈশ্বরদী পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া পিন্টু এবং অন্যতম আসামি পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি ও ঈশ্বরদী পৌরসভার সাবেক মেয়র মকলেছুর রহমান বাবলু আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বিএনপি নেতা হুমায়ুন কবীর দুলাল আদালতে হাজির না থাকায় তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

জানা যায়, ১৯৯৪ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে ট্রেনমার্চ করার সময় পাবনার ঈশ্বরদী রেলস্টেশনে তখনকার বিরোধী দলীয় নেতা শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনের বগি লক্ষ্য করে গুলি করা হয়।

তবে ওই ঘটনায় প্রাণে বেঁচে যান আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সে সময় সরকারের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

হামলার ঘটনায় রেলওয়ে পুলিশ বাদী হয়ে ১৩৫ জনকে আসামি করে মামলা করলেও বিএনপির আমলে তদন্ত এগোয়নি। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে তদন্ত গতি পায়।

তদন্ত শেষে মোকলেছুর রহমান বাবলু, জাকারিয়া পিন্টুসহ ৫২ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।

Read previous post:
ভারতের বিপক্ষে পরিসংখ্যানে টাইগার ক্রিকেটাররা

তৃতীয় মাত্রা ডেস্ক রিপোর্ট : ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে আগের সেই উত্তাপ এখন আর দেখা যায় না। বিভিন্ন কারণে আগের সেই আমেজ...

Close

উপরে