• Saturday, 28 January 2023

‘দমনপীড়ন মোকাবেলা করেই সমাবেশ সফল করব’: মির্জা আব্বাস

‘দমনপীড়ন মোকাবেলা করেই সমাবেশ সফল করব’: মির্জা আব্বাস

সরকারের দমনপীড়ন এবং সন্ত্রাস মোকাবেলা করেই ঢাকার সমাবেশ করতে বিএনপি প্রস্তুত বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন মির্জা আব্বাস।

আজ ৫ ডিসেম্বর সোমবার দুপুরে নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ঢাকা বিভাগীয় সমাবেশ প্রস্তুতি কমিটির প্রধান উপদেষ্টা এই প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এতে আগামী ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় বিভাগীয় গণসমাবেশের বিকল্প জায়গার বিষয়ে দলের মত তুলে ধরেন তিনি।

এ সময় মির্জা আব্বাস বলেন, ‘আমাদের মহানগরে নেতারা কেউ বাসায় থাকতে পারছেন না। সরকার এ রকম সন্ত্রাসমূলক আচরণ করে ঢাকায় একটা দুরাবস্থা সৃষ্টি করেছে। কিন্তু কর্মীরা ভীত নয়। আমরা সরকারের দমনপীড়ন ও যেকোনো রকম সন্ত্রাস মোকাবেলা করেই সমাবেশ সফল করব, ইনশাল্লাহ। সরকারের কাছে আহ্বান, আমাদের শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করার কাজে কোনো বাধার সৃষ্টি করবেন না।’

নয়া পল্টনের বাইরে বিকল্প প্রস্তাব সম্পর্কে জানতে চাইলে এ বিষয়ে মির্জা আব্বাস বলেন, ‘সোহরাওয়ার্দী উদ্যান আর তুরাগপাড় ছাড়া ঢাকার ভেতরে সন্তোষজনক কোনো স্থান, তারা যদি আমাদেরকে বলতে পারে- তাহলে আমরা চিন্তা করে দেখব।’

সমাবেশের লিফলেট বিতরণকালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে ইশরাক হোসেনের ওপর হামলােএবং তার গাড়ির ভাঙচুরের ঘটনার নিন্দা জানান মির্জা আব্বাস। তিনি আরও বলেন, ‘ইশরাকের ওপর হামলা করে তারা (আওয়ামী লীগ) প্রমাণ করল যে, সন্ত্রাস বিএনপি নয়, তারাই করছে। এই ধরনের হামলার ঘটনা একটা নয়, একের পর এক তারা এই ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে যাচ্ছে। কিছুদিন আগে আমাদের মানবাধিকারবিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার নাসির উদ্দিন অসীমের বাসায় হামলা করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি জানতে চাই, আমরা একটি শান্তিপুর্ণ সমাবেশ করব। সেই সমাবেশে আমাদের পরবর্তী কর্মসূচি আসতে পারে। তাহলে কেন এভাবে ক্ষমতাসীনরা হামলা করছে?’

মির্জা আব্বাস আরও বলেন, ‘অনেকে আমার কাছে প্রশ্ন করেছেন ভাই ওইদিন (১০ ডিসেম্বর) কি আপনারা বসে পড়বেন। আমরা বসে পড়ব কেন? আমাদের বসে পড়া তো কাজ নয়। আমাদের কাজ হলো- ১২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত সমাবেশ করব। এটাই হলো আমাদের কাজ। তারপরে আমাদের কর্মীরা যার যার মতো বাসায় ফিরে যাবে। এটুকু শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে দেবে না, তারা হামলা করবে। এটা কেনো?’

সকালে শাহজাহানপুরের নিজের বাসা আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ঘেরাও করে রাখার কথা তুলে ধরে বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাস বলেন, ‘আমার বাসায় আজকে একটা কর্মী সভা ছিল। সেখানে শান্তিপূর্ণ মিটিংয়ের বিষয়ে আমি নির্দেশনা দেব। সেটা আমাকে করতে দেওয়া হলো না। চারিদিক থেকে আমার বাড়ি ঘিরে ফেলা হলো। এটা কেন? আমরা কি নিজের বাসায় নিরাপদ না, আমরা কি নিজের অফিসে নিরাপদ না? এই দেশ, এ জাতি কি একটা সন্ত্রাসীদের হাতে পড়ে গেছে? আমার দেশ ও জাতি আজ নিরাপদ নয়।’

এ সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, ঢাকা উত্তরের আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান, দক্ষিণের আহ্বায়ক আবদুস সালাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, আজাদ, মহানগর সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু, সদস্য ইশরাক হোসেন, ছাত্রদলের সাইফ মাহমুদ জুয়েল এবং রাকিবুল ইসলাম রাকিব প্রমুখ নেতৃ্বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

comment / reply_from