• Tuesday, 06 December 2022

শান্তসহ বাকিদের মানসিক ডাক্তার দেখানোর জন্য বলেছেন ওয়াসিম আকরাম

শান্তসহ বাকিদের মানসিক ডাক্তার দেখানোর জন্য বলেছেন ওয়াসিম আকরাম

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ওঠার এ রকম সুযোগ বারবার আসে না। কিন্তু, বাংলাদেশ সেটা কাজে লাগাতে পারলে তো! পাকিস্তানের সাথে জিতলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত। এমন ম্যাচে চরম ব্যাটিং ব্যর্থতার পরিচয় দিলো বাংলাদেশ দল। সুন্দর শুরুর পরে ১৫০-৬০ রানের উইকেটে টাইগাররা করলো মাত্র ১২৭ রান! সেই রান তুলতে পাকিস্তানের যে কষ্ট হয়েছে। তাতে দেড়শ’ রান করলে যে বাংলাদেশ জিতে যেত- সেটা বলে দিতে হয় না।

একই আক্ষেপ রয়েছে পাকিস্তানের কিংবদন্তি ওয়াসিম আকরামের।

পাকিস্তানের একটি টিভি শোতে 'সুলতান অব সুইং' বাংলাদেশি ব্যাটারদের মানসিকতা নিয়ে এমন বিস্ময় প্রকাশ করেন। ১০ ওভারে ১ উইকেটে ৭০ রান তুলে নেয়ার পর দল কীভাবে ১২৮ রানে আটকে যায়! আকরাম বলেন, 'খেলা শেষে তো খুশিই হয়েছি। কারণ অনেক ভুল করার পরও আমরা সেমিফাইনালে কোয়ালিফাই করেছি। এই ম্যাচে পর বাংলাদেশের উচিত আত্মসমালোচনা করা। আমি যদি বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক কিংবা কোচ হতাম, তাহলে অবশ্যই এই খেলোয়াড়দের মনোচিকিৎসকের কাছে নিয়ে যেতাম।'

নিজের এ বক্তব্য ব্যখ্যা করে 'সুলতান অব সুইং' বলেন, 'একটা বিষয় দেখুন, শান্ত যেখানে ৫৪ রান করে ফেলেছে, সে ভালো ব্যাটিং করছিল। ২ উইকেটে তাদের ৭৩ রান ছিল, আমি ভেবেছিলাম তাদের স্কোর হয়তো ১৬০ রানে পৌঁছবে। কিন্তু ইফতেখারের বলে অদ্ভুত শট খেলে শান্ত আউট হয়ে গেল! সে যদি শুধু সিঙ্গেল নিয়ে যেত, তাহলেই ওদের স্কোর ১৫৫ হয়ে যেত। কিন্তু কেউ টিকতেই পারল না! অবশ্যই ওই সময় শাহিন (আফ্রিদি) ভালো বোলিং করেছে।'

বাংলাদেশের ব্যাটারদের গেম প্ল্যানেরও কঠোরভাবে সমালোচনা করেন আকরাম। এ বিষয়ে তিনি আরও বলেন, 'যখন আপনি প্রতিপক্ষের প্রধান বোলারকে দেখবেন, অবশ্যই বুঝতে হবে সে উইকেট নিতে এসেছে। সেখানে আপনি উল্টোপাল্টা শট না খেলে স্ট্রাইক রোটেট করবেন। কিন্তু ওরা যেন প্রতিজ্ঞা করেছিল, মারতে যদি হয় তাহলে শাহিনকেই মারব! এতে একটা বিষয় ভালো হয়েছে, শাহিন তার ছন্দ ফিরে পেয়েছে। সেমিফাইনালের আগে পাকিস্তানের জন্য এটা দারুন খবর।'

comment / reply_from