• Saturday, 10 December 2022
যমুনা নদী ভাঙ্গনের তান্ডবলীলা চলছে ইসলামপুরে

যমুনা নদী ভাঙ্গনের তান্ডবলীলা চলছে ইসলামপুরে

ওসমান হারুনী,বিশেষ প্রতিনিধি:
জামালপুরের ইসলামপুরে নোয়ারপাড়া ইউনিয়নের কাজলা-কাঠমা গ্রামে যমুনা নদীর ভাঙ্গনের তান্ডবলীলা চলছে। ভাঙ্গন আতংকের হুমকীর মধ্যে রয়েছে যমুনা নদী পাড়ের কয়েকটি গ্রামের শত শত পরিবার ও বিস্তীর্ণ এলাকার ফসলী জমি। গত ১৫দিন ধরে ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। ভাঙনের ফলে ঘরবাড়ী বসতভিটা ফসলী জমি মুহুর্তেই নদীতে বিলীন হচ্ছে। অপর দিকে ভাঙন অব্যাহত থাকায় মেলান্দহ উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের পশ্চিমের এলাকায় মানুষ আতংক বিরাজ করছে।


জানা গেছে, যমুনার নদীর পানি হ্রাস-বৃদ্ধির সাথে সাথে এই ভাঙ্গনের তান্ডবলীলা চলছে। শনিবার ভাঙ্গন কবলিত এলাকা গিয়ে দেখা যায়, নদী ভাঙন কবলিত এলাকায় নদী থেকে অবৈধ খনন করে কাঠমা রফিকুল ও রাসেল, নদীর তীরে ফজু বলগেট দিয়ে বালু তুলে নদীর তীরে জমা করছে। এতে ওই এলাকায় ভাঙ্গন আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। যার ফলে গত ১৫দিন যাবৎ কাঠমা এলাকায় যমুনা নদীর ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। এভাবে ভাঙন অব্যাহত থাকলে কাঠমা গ্রাম একেবারে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে। ভাঙন কবলিত লোকজন তাদের বাড়িঘর অন্যত্র সরিয়ে নিচ্ছে। স্থানীয়রা জানান, অব্যাহত ভাঙ্গনে ৫০টি ঘরবাড়ি ও বসতভিটা যমুনা গর্ভে চলে গেছে। কাজলা কাঠমা সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মাদ্রাসা, রাস্তা, ব্রীজ কালভার্ট,ফসলী জমিসহ মানুষের ঘরবাড়ী ভাঙ্গনে আতঙ্গে রয়েছে


এব্যাপারে স্থানীয় এলাকাবাসী অবৈধ বালু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা ও নদী ভাঙন রোধকল্পে স্থায়ীভাবে পাইলিং ও বাঁধ নির্মাণের দাবী জানিয়েছেন।
নোয়ারপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার রোমান হাসান বলেন, নদীর পানি কমার সাথে সাথে কাজলা-কাঠমা ভাঙন শুরু হয়েছে। দ্রæত নদী ভাঙ্গনে মানুষ গুলো রক্ষা পেতে প্রশাসনের সদয় হস্তক্ষেপ কামনা করছি।“


এব্যাপারে জামালপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু সাইদ জানান, ভাঙন রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।
এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মু.তানভীর হাসান রুমান জানান,নদী থেকে বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে তিনি খোজঁ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় নিবেন।
ওসমান হারুনী

comment / reply_from