Saturday, 26 November 2022
Logo

মৃত্যুর ৯ বছর পরে প্রকাশ্যে তালেবানের প্রতিষ্ঠাতার কবর

মৃত্যুর ৯ বছর পরে প্রকাশ্যে তালেবানের প্রতিষ্ঠাতার কবর

মৃত্যুর ৯ বছর পরে প্রথমবার মোল্লা ওমরের কবরের অবস্থান প্রকাশ করলো তালেবানরা। এতদিন যাবৎ তার মৃত্যুর খবর গোপন রাখা হয়েছিলো। তালেবানের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন মোল্লা ওমর। গত রবিবার তালেবানের সদস্যরা ওমরের কবরের পাশে জমায়েত হয়ে শোক প্রকাশ করেন। সেই ছবিই সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে।

তালেবান মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ রবিবার সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, ‘তালেবানের নেতারা আফগানিস্তানের জাবুল প্রদেশের সুরি জেলার ওমরজোরের কাছে মোল্লা ওমরের কবরের পাশে জমায়েত হয়ে শোক প্রকাশ করেন। ’

গত ২০০১ সালে তালেবানদের নাস্তানাবুদ করেছিল মার্কিন সেনারা। এরপরে শোনা যায়, ‘শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিলেন ওমর। পরে ২০১৩ সালে তার মৃত্যু হয়। তারও দুই বছর পর ২০১৫ সালে তার মৃত্যুর কথা স্বীকার করে তালেবানরা। গত বছরের আগস্টে তালেবানরা মার্কিন সেনাদের কাছ থেকে আবার আফগানিস্তান দখল করে। প্রায় ২০ বছর পর মার্কিন সেনাদের কাছ থেকে আফগানিস্তানকে ছিনিয়ে নেয় তালেবানরা। তার পরেই ওমরের কবরস্থানের অবস্থান প্রকাশ্যে আনল তাঁরা।’

কেন এত দিন ধরে ওমরের কবরস্থান গোপন রাখা হয়েছিল সে ব্যাপারে মুজাহিদ বলেন, 'যেহেতু চারপাশে প্রচুর শত্রু ছিল এবং দেশটি মার্কিন সেনার দখলে ছিল, তাই ওমরের কবরের যাতে কোনো ক্ষতি না হয় সে জন্য এটি গোপন রাখা হয়েছিল। শুধু তার পরিবারের ঘনিষ্ঠ সদস্যরা জায়গাটি সম্পর্কে অবগত ছিলেন।'

প্রকাশ পাওয়া ছবিতে দেখা যায়, ‘তালেবান নেতারা সাদা ইটের একটি কবরের চারপাশে জড়ো হয়েছেন। কবরটি সবুজ রং করা লোহার বেষ্টনী দিয়ে ঘেরা রয়েছে। মুজাহিদ বলেন, 'এখন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে মানুষ তার সমাধি দেখতে পারবে।'

প্রসঙ্গত, ৫৫ বছর বয়সে ওমরের মৃত্যু হয় জানা যায়। তিনি ১৯৯৩ সালে তালেবান প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। -সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস।

comment / reply_from

related_post