• Saturday, 10 December 2022

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট টিভি!

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট টিভি!

যত দিন যাচ্ছে বিশ্বজুড়ে ইলেকট্রনিক ডিভাইসগুলোর স্ক্রিন ততো বেশি বড় হচ্ছে। কিন্তু, বিশ্বের সবচেয়ে ছোট টেলিভিশন তৈরি করে তার উল্টো পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইলেকট্রনিকস কোম্পানি 'টিনিসার্কিটস'। কোম্পানিটি 'টিনিটিভি'র দুটি নতুন প্রটোটাইপ উন্মোচন করেছে।

'টিনিটিভি মিনি'র স্ক্রিনের আকার মাত্র শূন্য দশমিক ৬ ইঞ্চি ও 'টিনিটিভি২'-এর স্ক্রিনের আকার এক ইঞ্চি।এ টিভিগুলোর আকার ডাকটিকিটের সমান হলেও এগুলো কাজ করবে সম্পূর্ণ আসল টিভির মতোই।

ভলিউম ও চ্যানেল পরিবর্তন করার জন্য টেলিভিশন দুটিতে রয়েছে ঘূর্ণায়মান নব। ডাকটিকিটের আকারের এ টিভিগুলো চার্জ দিয়ে চালাতে হবে। প্রতি চার্জে এক ঘণ্টা প্লেব্যাক পাওয়া যাবে বলে জানা যায়।

ব্যবহারকারীরা চাইলে ইউএসবি সি কেবলের মাধ্যমে এটিকে কম্পিউটারের সাথে সংযোগ দিতে পারবে। টিনিটিভির মাধ্যমেও স্ট্রিম করতে পারবে। এছাড়া দুটি টিনিটিভিতেই একটি করে আট গিগাবাইটের মাইক্রোএসডি কার্ড ইনস্টল করা রয়েছে। যাতে ১০ থেকে ৪০ ঘণ্টার বেশি ফুটেজ সংরক্ষণ করা যাবে। এ টিভি ব্যবহারকারীরা চাইলে কম্পিউটারে সংযোগ দিয়ে এতে পছন্দমতো ভিডিও লোডও করতে পারবে।

টিনিসার্কিটস তাদের টিভি দুটির জন্য একটি ইনফ্রারেড রিমোটও তৈরি করেছে। যা ব্যবহারকারীরা চাইলে আলাদা কিনে ব্যবহার করতে পারবেন। রিমোটটি টিভি চালু ও ভলিউম পরিবর্তন এবং ভিডিও/চ্যানেল পরিবর্তন করতে পারবে।

টিনিটিভি দু’টি টিনিসার্কিটসের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট কেন বার্নস তৈরি করেছেন। কোম্পানিটি যুক্তরাষ্ট্রের ওহাইওতে অবস্থিত। ছোট ইলেকট্রনিকসের কম্পানিটি ২০১২ সালে টিনিডুইনো প্রজেক্ট নামের একটি ক্ষুদ্র কম্পিউটার প্রসেসর চালু করেছিল।

টিনিটিভি-২ কালো ও ধূসর রঙের মিশ্রণে এবং টিনিটিভি মিনি সম্পূর্ণ কালো রঙে পাওয়া যাবে। কিকস্টার্টারের মাধ্যমে কিনলে, এগুলোর দাম পড়বে ৪৯ মার্কিন ডলার। দু’টি টিভিরই স্বচ্ছ সংস্করণ পাওয়া যাবে, যার দাম পড়বে ৫৯ ডলার। এছাড়া, ইনফ্রারেড রিমোটের জন্য অতিরিক্ত ১০ ডলার গুনতে হবে।

ডিভাইসটি বর্তমানে কিকস্টার্টার প্রচারণার অংশ হিসেবে রয়েছে। যেখানে কম্পানিটি এখন পর্যন্ত এক লাখ ২৮ হাজার ৬৪০ মার্কিন ডলার সংগ্রহ করেছে। -সূত্র : ডেইলি মেইল।

comment / reply_from