• Saturday, 10 December 2022

ধসের পর খনিতে ৯ দিন বেঁচে যেভাবে থাকলেন ২ শ্রমিক

ধসের পর খনিতে ৯ দিন বেঁচে যেভাবে থাকলেন ২ শ্রমিক

দক্ষিণ কোরিয়ায় ধসে পড়া দস্তা খনিতে নয় দিন আটকে থাকা দুই খনি শ্রমিককে উদ্ধার জীবিত করা হয়েছে বলে জানা যায়। এ উদ্ধার হওয়া ৬২ ও ৫৬ বছর বয়সী এই দুই ব্যক্তি প্লাস্টিক দিয়ে তাঁবু তৈরি ও আগুন জ্বালিয়ে ও কফি পাউডার খেয়ে এতদিন পার করেছেন। তাদের অবস্থা এখন স্থিতিশীল বলে জানা যায়।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ‘তারা ছাঁদ বেয়ে পড়া পানি পান করে আটকে থাকা দিনগুলো পার করেছেন। এছাড়া, খাবার হিসেবে তাদের কাছে তাৎক্ষণিক কফি তৈরির মিক্স পাউডার ছিল। দক্ষিণ কোরিয়ার ইয়োনহাপ বার্তা সংস্থা অনুসারে, বৃহস্পতিবার উদ্ধার অভিযান শুরু করা হয়। এ সময় অভিযানের কর্মীরা একটি গর্ত খুঁড়েন এবং খনি শ্রমিকদের সনাক্ত করার জন্য গর্ত দিয়ে একটি ছোট ক্যামেরা প্রবেশ করান।’

বেঁচে যাওয়া একজন শ্রমিকের ভাতিজি জানিয়েছেন যে, তার চাচা বাইরে এসে তাকে চিনতে পারেননি। কারণ, তিনি প্রায় ১০ দিন অন্ধকারে চোখের মাস্ক পরেছিলেন। অন্যদিকে, বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, ‘তিনি তার উদ্ধার হওয়ার ঘটনাকে 'অবাস্তব' বলে বর্ণনা করেছেন।’

এ ঘটনার দিন ২৬ অক্টোবর দুই শ্রমিক দেশটির পূর্বাঞ্চলের বোংহোয়াতে দস্তা খনিতে কাজ করছিলেন। হঠাৎ খনির কিছু অংশ ধসে পড়লে দু’জন প্রায় ৬৫০ ফুট মাটির নিচে আটকা পড়েন। অবশেষে, গত শুক্রবার রাতে তাদের উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারের পর, তাদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক বলেছেন তাদের পুরোপুরি সুস্থ হতে কিছু সময় লাগবে।

দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপতি ইউন সুক-ইওল তাদের উদ্ধার হওয়ার এ ঘটনাকে 'সত্যিই অলৌকিক' বলে অভিহিত করেছেন। তিনি ফেসবুকে লিখেছেন, 'জীবন-মৃত্যুর মোড় থেকে নিরাপদে ফিরে আসার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ এবং আবারও ধন্যবাদ।'

দুই খনি শ্রমিকের নয় দিন আটকে থাকার পরে উদ্ধার হওয়ার ঘটনাটি এমন সময় ঘটল, যখন দেশটিতে জাতীয় শোক চলছে। গত সপ্তাহে রাজধানী সিউলে হ্যালোইন উদযাপনের সময় এ দূর্ঘটনায় দেড় শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছেন। -সূত্র: বিবিসি।

comment / reply_from

related_post