• Saturday, 10 December 2022

তিস্তা প্রকল্প নিয়ে ভূরাজনৈতিক চাপ আছে: চীনা রাষ্ট্রদূত

তিস্তা প্রকল্প নিয়ে ভূরাজনৈতিক চাপ আছে: চীনা রাষ্ট্রদূত

ঢাকায় নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং বলেছেন, ‘তিস্তা প্রকল্প ভূরাজনৈতিকভাবে স্পর্শকাতর। এ প্রকল্প নিয়ে বাংলাদশের ওপর ভূরাজনৈতিক চাপ আছে। তবে এটি বাংলাদেশের ইচ্ছার বিষয়, বাংলাদেশ চাইলে চীন তিস্তা প্রকল্পের উদ্যোগ নিবে।’

আজ ৫ নভেম্বর শনিবার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে বাংলাদেশ-চীন সিল্ক রোড ফোরামের আয়োজনে চীনের কমিউনিস্ট পার্টির ২০ তম কংগ্রেস পরবর্তী সেমিনারের বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসব মন্তব্য করেন তিনি।

সেমিনারে প্রশ্নত্তোর পর্বে চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, 'চীন বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান উন্নয়ন অংশীদার। তিস্তা প্রকল্প নিয়ে বাংলাদেশ আমাদেরকে প্রস্তাব দিয়েছে। ফলে বাংলাদেশের পানি সমস্যার সমাধানের বিষয়টি মাথায় রেখে চীন তিস্তা প্রকল্প করতে ইচ্ছুক। আমরা হাজার বছর ধরে পানি ব্যবস্থাপনার সঙ্গে জড়িত।'

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রশ্নের জবাবে লি জিমিং আরও বলেন, 'আমাদের প্রধান লক্ষ্য রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন। আমাদের বৈঠকের পর গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি হয়েছে। বাংলাদেশ ও মিয়ানমার উভয়েই চীনের বন্ধু, ফলে এই সংকটের একটি বন্ধুত্বপূর্ণ সমাধান চীনের লক্ষ্য। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিষয়টি দ্রুত ঘটুক এটা অনেকেই চায় না। তাদের বাণিজ্যিক স্বার্থ এখানে জড়িত।'

রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধ বন্ধে ইউরোপের দেশগুলো যথাযথ ভূমিকা পালন করছে না বলে অভিযোগ করেন চীনা রাষ্ট্রদূত। এ বিষযে তিনি বলেন, 'বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠায় আগ্রহী চীন। যুদ্ধ বন্ধের উদ্যোগের বিপরীতে অনেক দেশ নিজেদের ব্যবসার হিসাব করছেন, জ্বালানী সংকট এর প্রমাণ। এ সংকটের ফলে এশিয়ান দেশগুলো সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়ছে।'

সেমিনারে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেন, 'এশীয় অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষা চীনের প্রতিশ্রুতি, তারা শান্তি চায়। অর্থনৈতিক সম্বৃদ্ধি অর্জনের সঙ্গে সঙ্গে তারা বিশ্ব শক্তিতে পরিণত হচ্ছে। বাংলাদেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডেও চীন ব্যাপকভাবে ভূমিকা রাখছে।'

এ সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সভাপতি দিলীপ বড়ুয়া। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু ও বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদের উপদেষ্টা খালেকুজ্জামানসহ প্রমুখ।

comment / reply_from