• Tuesday, 06 December 2022

গীতিকার বিশালের মৃত্যুতে সড়কের নৈরাজ্যকে দুষছেন ফাহমিদা নবী

গীতিকার বিশালের মৃত্যুতে সড়কের নৈরাজ্যকে দুষছেন ফাহমিদা নবী

ত সোমবার সকালে কাভার্ডভ্যানের চাপায় মারা গেছেন তরুণ গীতিকার ওমর ফারুক বিশাল। বিশাল একজন গণমাধ্যমকর্মীও ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি (বাচসাস) এর একজন সদস্য তিনি। বিশালের এ রকম মৃত্যু মেনে নিতে পারছে না দেশের শিল্পী সমাজ। গণমাধ্যমকর্মীরাও বিশালের এ রকম মর্মান্তিক মৃত্যুতে হতবাক।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপকভাবে এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন সকলেই। বিশালের মৃত্যুতে শিল্পী ফাহমিদা নবী একসাথে অনেকগুলো প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন। গীতিকারের একটি ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে লিখেছেন, ‘আর কতো সড়ক দুর্ঘটনা, আর কতো অকালে প্রাণ যাওয়া! কেন এতো অস্থিরতা, কিসের এতো তাড়া? কেন বাসগুলো এতো দ্রুত চলে, কেন কিছু মানেনা, কেন নির্বিকার? ’

কণ্ঠশিল্পী রবিবারের একটি অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে বলেন, ‘গতকালই দেখেছি মাঝ রাস্তায় বাস থামিয়ে যাত্রী ওঠাচ্ছে এক বাস চালক একটু হলেই ধাক্কা লাগতো, বিশাল অ্যাকসিডেন্ট হতো গাড়ির সাথে। রিকশা ,গাড়ি ,পথচারী কারো কোনও ভয় নাই, সচেতনতা নাই, ভালোবাসাহীন পথ চলা, কেন?’

বিশালের এমন মর্মান্তিক মৃত্যু নিয়ে বলতে গিয়ে ফাহমিদা নবী বলেন, ‘আমাদের মেধাবী হাসিখুশী ভালো মানুষ গীতিকবি এবং সাংবাদিক ছোট ভাই বিশালের প্রাণ কেড়ে নিল সড়কে বেহিসেবী বাস ট্রাক চালকের অবহেলা! সহ্য করা যায়না বেপোরোয়া অমানবিকতা, খুব কষ্ট পাচ্ছি। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রাজিউন। হে আল্লাহ আপনি তার পরিবার কে এই শোক বইবার শক্তি দান করুন। আমিন।’

তিনি বলেন, ‘অনেক সচেতনতামূলক আলোচনা ,পর্যালোচনা, সেমিনার হচ্ছে, হয়েছে, হবে, তবে নিজে না ঠিক হলে এই সচেতনার আওয়াজে কিছু ঠিক হবেনা এবং কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করতেই হবে।’

comment / reply_from