• Tuesday, 07 February 2023

`ইউক্রেনের জ্বালানি অবকাঠামোয় হামলা চলবে': পুতিন

`ইউক্রেনের জ্বালানি অবকাঠামোয় হামলা চলবে': পুতিন

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন `ইউক্রেনের জ্বালানি অবকাঠামোয় হামলা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন'। আজ বৃহস্পতিবার তিনি বলেছেন, `কোনও সমালোচনা রাশিয়ার যুুদ্ধ অভিযানের কিছু পরিবর্তন করবে না।'

ক্রেমলিনে ‘হিরো অব রাশিয়া’ পদক বিতরণ অনুষ্ঠানে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, ‘হ্যাঁ, আমরা তা (জ্বালানি অবকাঠামোতে হামলা) করেছি। কিন্তু কে এটা শুরু করেছে?...কোনও সমালোচনা ‘আমাদের যুুদ্ধ অভিযানের কিছুকে পরিবর্তন করবে না।'

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দাবি করেন, গত ৮ অক্টোবর ক্রিমিয়া উপদ্বীপকে রাশিয়ার সাথে সংযুক্তকারী সেতুতে হামলার মধ্য দিয়ে ইউক্রেনই এ ধরনের কাজ প্রথম শুরু করে।

রাশিয়া বেশ কিছুদিন যাবৎ ইউক্রেনের জ্বালানি এবং বিদ্যুত্ ব্যবস্থায় হামলা চালাচ্ছে। এতে লাখ-লাখ ইউক্রেনীয় পানি ও শীতে ঘর গরম করা কিংবা বিদ্যুত্ সুবিধা ছাড়া দুর্ভোগের মধ্যে দিন পার করছেন।

ইউক্রেনের পশ্চিমা মিত্ররা দাবি করছে, ‘যুদ্ধে প্রতিকূল পরিস্থিতির মুখে পড়ায় মস্কো এসব হামলা চালাচ্ছে। রুশবাহিনী বেসামরিক অবকাঠামোয় হামলা করায় পশ্চিমা দেশগুলো একে যুদ্ধাপরাধ হিসেবে অভিহিত করছে।’

ভ্লাদিমির পুতিন অভিযোগ করেন, ‘ইউক্রেন কুরস্ক পরমাণু বিদ্যুেকন্দ্রের বিদ্যুত্ সরবরাহ সংযোগ উড়িয়ে দিয়েছে। দোনেেস্ক (রাশিয়ার সংযুক্ত দাবি করা) পানি সরবরাহ বন্ধ করেছে। পশ্চিমাদের বিরুদ্ধে ইউক্রেনের এসব কাজ নিয়ে ‘সম্পূর্ণ নীরব’ থাকার অভিযোগ তুলে পুতিন বলেন, ‘দশ লক্ষাধিক মানুষের শহরে পানি সরবরাহ বন্ধ করা গণহত্যার মতো কাজ। ’ পুতিন বলেন, রাশিয়া যখন ইউক্রেনের আগ্রাসনের জবাব দেয় তখন ‘সারা পৃথিবীতে হৈচৈ ও শোরগোল পড়ে যায়।’ -সূত্র: বিবিসি

comment / reply_from